প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

শিশু হত্যার বিচারের দাবীতে উত্তরায় সড়ক অবরোধ, ৬ ঘন্টা পর যানচলাচল স্বাভাবিক

মাসুদ আলম : রাজধানীর দক্ষিণখানে রিফাত (৮) নামে এক শিশু হত্যার প্রতিবাদে উত্তরায় সড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ করেছে এলাকাবাসী ও গার্মেন্ট শ্রমিকরা। সকাল ১১টায় কয়েক হাজার বিক্ষোভকারী রাজলক্ষ্মী কমপ্লেক্সের সামনে মহাসড়কে অবস্থান নিয়ে বিক্ষোভ শুরু করে। এতে বিমানবন্দর-টঙ্গী মহাসড়কের দুই পাশের যান চলাচল বন্ধ হয়ে যায়। অনেকে গাড়ি থেকে নেমে পায়ে হেঁটে গন্তব্যস্থলে যায়। পরে বিকেল ৫টার পর রাস্তা ছেড়ে দেয় বিক্ষোভকারীরা। পরে যানচলাচল স্বাভাবিক হয়। বেশ কয়েকটি গাড়ি ভাংচুরের ঘটনাও ঘটেছে।

বিক্ষোভকারীরা বলেন, দক্ষিণখান এলাকায় মুনসী মার্কেট এলাকায় রিফাতের বাসা। তার বাবার নাম আবদুর রশিদ। গত শনিবার পাশের বাড়ির ছাদে শিশুটি ঘুড়ি উড়াচ্ছিল। এ সময় ঘুড়িটি ছিঁড়ে অজিত কুমার নামে অন্য আরেকটি বাড়ির মালিকের গায়ের ওপর পড়ে যায়। কিছু সময় পর ঘুড়ি ফেরত দেওয়ার কথা বলে রিফাতকে ডেকে নেয় ওই বাড়ির মালিক। এর পর রিফাতকে বাড়ির ভেতর গলাটিপে হত্যা করে লাশ পানির ট্যাংকে ফেলে দেয় সে। রিফাতের খোঁজ না পেয়ে দক্ষিণখান থানায় অভিযোগ করেন নিহতের পরিবার। পরে সোমবার রাতে পুলিশ ওই বাসায় তল্লাশি চালিয়ে ট্যাংক থেকে রিফাতের লাশ উদ্ধার করে। কিন্তু মামলা করতে গেলে পুলিশ মামলা নিতে তালবাহানা করে। বাড়িওয়ালা প্রভাবশালী বলে পুলিশ তাকে ধরছেনা। ওই বাড়িওয়ালার বিচারের দাবীতে সড়ক অবরোধ করা হয়। অবরোধকারীরা ‘গরিবের বিচার হয় না, গরিবের বিচার হয় না’ বলে স্লোগান দিতে থাকে। প্রয়োজনে আবারও সড়ক অবরোধ করবে তারা।

উত্তরা মডেল থানার এসআই মনিয়ারা আক্তার বলেন, ৫টার পর সড়ক ছেড়ে দেয় তারা। দক্ষিণখান থানার পরিদর্শক (তদন্ত) শফিকুল গনি বলেন, রিফাত মৃত্যুর ঘটনাকে নিয়ে পুলিশের সঙ্গে ভুল বোঝাবোঝির কারণে সড়কে অবস্থান নেয় স্থানীয়রা। শিশুটির মা গার্মেন্ট বলে গার্মেন্টস শ্রমিকরাও রাস্তায় নেমে আসে। সেই বাড়ির মালিক পলাতক রয়েছেন। তাকে গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত