প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

দুই ভারতীয় বিমানকে ভূপাতিত করার দাবী পাকিস্তানের, পাকিস্তানী এফ-১৬ ধবংসের পাল্টা দাবী ভারতের

নূর মাজিদ : অধিকৃত কাশ্মীরের নিয়ন্ত্রণরেখা বরাবর ভারত এবং পাকিস্তানের মধ্যে সামরিক সংঘাত নতুন মাত্রায় রুপ নিয়েছে। মঙ্গলবার নিজ ভূ-খ-ে ভারতীয় বিমান হামলার জবাবে গতকাল বুধবার পাকিস্তান একটি ভারতীয় বিমান ও একটি হেলিকপ্টার ভূপাতিত করার দাবী করেছে। গতকাল বুধবার সকালেই পাকিস্তান সেনাসদরের আন্ত:বাহিনী সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে(আইএসপিআর) বিবৃতিতে এই দাবী করা হয়। এর কিছুক্ষন পরেই দেশটির পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র ডক্টর মুহাম্মদ ফয়সাল জানান, ‘বিমানবাহিনী পাকিস্তান অধিকৃত কাশ্মীরের আকাশসীমাতে থেকেই ভারতীয় সীমানায় হামলা করেছে। এই হামলার মাধ্যমে পাকিস্তান নিজের আত্মরক্ষার অধিকার, সামর্থ এবং ইচ্ছাশক্তির বহিঃপ্রকাশ করেছে।’ এসময় তিনি আরো বলেন, আমরা এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে আরো সংঘাত হোক এমনটা চাইনা, তবে এমনটি হলে তার জন্য পাকিস্তানের পূর্ণ প্রস্তুতি রয়েছে। ডন, এনডিটিভি, এএনআই

পাকিস্তানী ফাইটার জেট ভারতীয় আকাশসীমায় নওশেরা এবং পুঞ্চ সেক্টর দিয়ে অনুপ্রবেশ করে। বুধবার সকালেই দেশটির একাধিক গণমাধ্যম এই খবর জানায়। এরপরেই পাকিস্তানের আইএসপিআর বিবৃতিতে বলা হয়, ভূপাতিত একটি ভারতীয় হেলিকপ্টারের দুইজন বৈমানিক নিহত হয়েছেন। ওই হেলিকপ্টারে থাকা ওপর এক বৈমানিককে গ্রেফতার করা হয়েছে। একইদিন, ভারতীয় নিয়ন্ত্রিত কাশ্মীরের বুডগ্রামে একটি ভারতীয় মিগ-২১ ফাইটার জেট বিদ্ধস্ত হয়েছে। পাকিস্তানী ফাইটার জেটের সঙ্গে আকাশযুদ্ধের কারণে এমনটি হয়েছে কিনা তা নিশ্চিত করেনি ভারতীয় সূত্র। তবে ভারতীয় গণমাধ্যম এএনআই দাবী করে, ভারতীয় বিমান বাহিনীর পাল্টা আক্রমণে পাকিস্তানের একটি এফ-১৬ ফাইটার জেট আকাশেই ধব্বংস হয়ে গেছে।

এর প্রেক্ষিতে ভারতীয় বিমান বাহিনীর তাৎক্ষনিক প্রতিক্রিয়ায় জানানো হয়, তাদের সকল পাইলট নিরাপদ রয়েছেন এবং পাকিস্তানী হামলায় তাদের কোন বিমান ভূপাতিত হয়নি। তবে নিয়ন্ত্রণ রেখার ওপারে পাকিস্তান সীমান্তের ল্যাম উপত্যকায় দেশটির বিমান বাহিনীর একটি এফ-১৬ জঙ্গি বিমান বিদ্ধস্ত হয়েছে বলে দাবী করেছে ভারত। এফ-১৬ বিমানটি ভারতীয় বিমানের পাল্টা আক্রমণেই বিদ্ধস্ত হওয়ায় সম্ভাবনা রয়েছে। ভারত সাম্প্রতিক পরিস্থিতির প্রেক্ষাপটে পাকিস্তানী বিমান তাদের সীমানায় অনুপ্রবেশ করেছে বলে জানিয়েছে। একইসঙ্গে জম্মুতে ভারতীয় সেনাবাহিনীর ব্যবহৃত আরেকটি এমআই-১৭ হেলিকপ্টার বিদ্ধস্ত হওয়ার খবর পাওয়া গেছে।
দুইদেশের গণমাধ্যম ও সরকারের পাল্টাপাল্টি বিবৃতির বরাতে বুধবার সকালে কাশ্মীরের নিয়ন্ত্রণ রেখা বরাবর যে একটি ভয়াবহ আকাশযুদ্ধ সংগঠিত হয়েছে, তা নিশ্চিত হওয়া গেছে।

কারণ কিছুক্ষণ পরেই ভারত অধিকৃত জম্মু ও কাশ্মীর রাজ্যের আকাশসীমায় বেসামরিক বিমান চলাচল নিষিদ্ধ করা হয়। অধিকৃত আজাদ কাশ্মীরে একই পদক্ষেপ নিয়েছে পাকিস্তান । এছাড়াও, লাহোর-ইসলামাবাদ রুটে সকল বিমান চলাচল বন্ধ করে দেয়া হয়েছে। উদ্ভূদ পরিস্থিতির প্রেক্ষাপটে ভারতীয় প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা অজিত দোভালসহ, দেশটির শীর্ষ সামরিক এবং গোয়েন্দা কর্মকর্তাদের সঙ্গে বৈঠক করেছেন। এদিকে পাকিস্তানী প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানও দেশটির পরমাণু অস্ত্রের ব্যবহার নিয়ন্ত্রণকারী কমিটি বা এনসিএ কর্মকর্তাদের সঙ্গে এক জরুরি বৈঠক করেন।

গত ১৪ ফেব্রুয়ারি ভারত অধিকৃত কাশ্মীরের পুলাওয়ামায় এক আত্মঘাতি বোমা হামলার দায় পাকিস্তান সমর্থিত জঈশ-ই-মোহাম্মদ জঙ্গিগোষ্ঠী স্বীকার করে নিলে পাল্টা প্রতিশোধের অঙ্গীকার করে ভারত। এরপরেই গত মঙ্গলবার শেষরাতে পাকিস্তানের জঙ্গিঘাটি লক্ষ্য করে হামলা চালায় ভারত। ভারতের দাবী, এই হামলায় ৩শ জঈশ জঙ্গি নিহত হয়েছে।

তবে পাকিস্তান জানায়, সেখানে কোন জঙ্গিঘাঁটি ছিলোনা বরং ভারতীয় বিমান ফাঁকা জায়গায় এবং জঙ্গলে বোমাবর্ষণ করেছে। তবে একই সময় দেশটির প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান পাল্টা জবাব দিতে তার দেশের সামরিক বাহিনীগুলোকে প্রস্তুত থাকার আহব্বান জানিয়েছিলেন।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত