প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

উত্তেজনার মধ্যেই চীন সফরে ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী সুষমা স্বরাজ, ফোনে বিমান হামলার ব্যাখ্যা দিলেন বাংলাদেশসহ ৫ দেশকে

দুর্জয় চক্রবর্তী : পাকিস্তানের বালাকোটে জইশ-ই-মোহাম্মদের ঘাঁটিতে বিমান হামলা নিয়ে চীন সফরে গিয়ে নিজেদের অবস্থান ব্যাখ্যা করলেন ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী সুষমা স্বরাজ। অন্যদিকে, বাংলাদেশসহ ৫টি দেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রীকে ফোন করে এ বিষয়ে দেশগুলোকে অবগত করেন তিনি। এনডিটিভি, ইয়ন

চীনের ইউহেনে ১৬ তম রাশিয়া-ভারত-চীন পররাষ্ট্রমন্ত্রীদের বৈঠকে অংশ নিতে গিয়েছেন সুষমা স্বরাজ। মূল বৈঠকের আগে চীনের পররাষ্ট্রমন্ত্রী ওয়াং উই এর সঙ্গে একটি দ্বিপাক্ষিক বৈঠকে বিমান হামলা নিয়ে নিজেদের অবস্থান ব্যাখ্যা করেন তিনি। বালাকোটে হামলার মাত্র ২৪ ঘন্টার মাথায় এ বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। সুষমা বলেন, ‘আমি এমন একটা সময় চীন সফর করছি যখন ভারতের জনগণের মধ্যে ক্ষোভ ও শোক বিরাজ করছে। আমাদের দেশের ওপর হওয়া ভয়াবহতম হামলাগুলোর অন্যতম ছিলো পুলওয়ামা হামলা।’

ভারতীয় বিমান বাহিনীর পাল্টা হামলার পক্ষে তিনি বলেন, ‘জইশ-ই-মোহাম্মদসহ অন্যান্য সন্ত্রাসী সংগঠনগুলো ধারাবাহিকভাবে পাকিস্তানের মাটি ব্যবহার করে ভারতে হামলা করছে এবং আরো হামলার পরিকল্পনা করছে। এ অবস্থায় পাকিস্তানকে বারবার অনুরোধ করা সত্ত্বেও তারা কোনও ব্যবস্থা গ্রহণ না করলে ভারত স্বতঃপ্রণোদিত হয়ে জঙ্গিঘাঁটিতে হামলা চালাতে বাধ্য হয়। তবে হামলার লক্ষ্য কোন সামরিক বা বেসামরিক নাগরিক ছিল না।’

জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদের সদস্যরাষ্ট্র চীন জইশ-ই-মোহাম্মদের প্রধান মাসুদ আজহারকে বৈশ্বিক সন্ত্রাসী হিসেবে চিহ্নিত করতে জাতিসংঘে ভারতের আবেদনকে প্রত্যাখ্যান করে এসেছে।

এর আগে, বিমান হামলার পরে সুষমা স্বরাজ ফোনে ৫টি দেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রীকে এ হামলার ব্যাখ্যা দেন। যাদের মধ্যে ছিলেন বাংলাদেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রী ডঃ এ কে আব্দুল মোমেন, যুক্তরাষ্ট্রের মাইক পম্পেও, চীনের ওয়াং উই, সিঙ্গাপুরের ভিভিয়ান বালাকৃষ্ণান ও আফগানিস্তানের সালাহ্উদ্দিন রাব্বানী।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত