প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

মামলা ও জরিমানা করলেও সড়কে শৃঙ্খলা ফিরছে না

মাসুদ আলম : রাজধানীর সড়কে শৃঙ্খলা ফেরাতে প্রতিদিনই মামলা ও জরিমানা আদায় করছে ঢাকা মেট্রোপলিন পুলিশের (ডিএমপি) ট্রাফিক বিভাগ। শত চেষ্টার পরও সড়কে শৃঙ্খলা ফিরছে না। বেপরোয়া গতিতে গাড়ি চালানো, যত্রতত্র যাত্রী ওঠানো-নামা, যত্রতত্র রাস্তা পারাপার বন্ধ হয়নি। ঘটছে একের পর এক দুর্ঘটনা।

গত সোমবার (ফব্রুয়ারি) দিনভর ট্রাফিক আইন লঙ্ঘনকারীদের বিরুদ্ধে অভিযান চালিয়ে ৬ হাজার ৩১৬ টি মামলা ও ৩২ লাখ ৮৬ হাজার ৯শ টাকা জরিমানা করেছে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের ট্রাফিক বিভাগ। এছাড়াও অভিযানকালে ২৭ টি গাড়ি ডাম্পিং ও ৭৯৯ টি গাড়ি রেকার করা হয়েছে। ট্রাফিক আইন না মানার কারণে সৃষ্টি হচ্ছে যানজট। এছাড়া রাজধানীতে খোঁড়াখুড়িও যানজটের অন্যতম কারণ। গত বছর বিমানবন্দর সড়কে ২ শিক্ষার্থী নিহতের পর থেকে সড়কে শৃঙ্খলা ফেরাতে তৎপর ডিএমপির ট্রাফিক পুলিশ। একাধিকবার সড়কে বিশেষ অভিযানও চালানো হয়েছে। ট্রাফিক পুলিশের পাশাপাশি বিভিন্ন স্বেচ্ছাসেবীরাও ছিল তৎপর।

সরজমিনে দেখা গেছে, সড়কে শৃঙ্খলা ফেরাতে ১৩০টি বাস স্টপেজে থাকলে নির্ধারিত স্টপেজে বাস থাকছে না। যার মধ্যে দক্ষিণ সিটিতে ৭০টি এবং উত্তরের ৬০টি স্থানের তালিকা করা হয়। প্রায় ৩৮টি স্থানে যাত্রী ছাউনি নির্মিত হয়েছে। এর মধ্যে ২৮টি দক্ষিণে আর ১০টি উত্তরে। কিন্তু স্টপেজ ব্যবহার না করে যত্রতত্র থামিয়ে যাত্রী তুলছেন বাসচালকরা। ট্রাফিক পুলিশ তৎপর থাকলে আইনমানার প্রবণতা দেখা যায়।

ডিএমপির অতিরিক্ত কমিশনার (ট্রাফিক) মীর রেজাউল করিম বলেন, ট্রাফিক পুলিশের একার পক্ষে সড়কে শৃঙ্খলা ফেরানো সম্ভব নয়, যদি মালিক পক্ষ ও চালকরা সহযোগিতা না করেন। যাত্রীরা স্টপেজে না যাওয়ায় যত্রতত্র বাস থামিয়ে যাত্রী তোলা হচ্ছে। সচেতনার জন্য টার্মিনালে গিয়ে বিভিন্ন সেশন করা হচ্ছে। ৯৯শতাংশ মোটরবাইক চালক ও যাত্রীরা হেলমেট ব্যবহার করছে।

যাত্রীরা বলছেন, চালক ও হেলপাররা নিয়ম না মানলে সড়কে শৃঙ্খলা ফেরানো সম্ভব নয়। যাত্রী দেখলেই যত্রতত্র বাস থামিয়ে যাত্রী তোলা হয়। এবার সিটিংয়ের নামে অতিরিক্ত ভাড়াও নেওয়া হয়। স্টপেজে যাত্রীরা দাঁড়িয়ে থাকলেও বাস থামায় না। পথচারিদের মধ্যে আইন মানার প্রবণতা বেড়েছে।
পরিবহণ বিশেষজ্ঞা বলেন, সবাই সচেতন না হলে সড়কে শৃঙ্খলা ফেরানো সম্ভব নয়। চুক্তিতে বাস চালানো বন্ধ করে চালক ও হেলপারদের বেতনের আওতায় আনতে হবে। মালিক ও চালকদের অসুস্থ প্রতিযোগিতা বন্ধ করতে হবে।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত