প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

বাংলা অডিও গানের যুবরাজ খ্যাত আসিফ আকবর এবার কণ্ঠ দেবেন বলিউড সিনেমায়

ফাহিম বিজয় : দীর্ঘ উনিশ বছর ধরে বাংলা ভাষাভাষীদের জনপ্রিয় গান উপহার দিয়ে আসছেন সঙ্গীত শিল্পী আসিফ আকবর। নিজেকে নিজে নিয়ে গেছেন অনন্য উচ্চতায়। পরিচিতি পেয়েছেন বাংলা গানের যুবরাজ রূপে। কখনওবা কণ্ঠপুরুষ হিসেবে। বাংলাদেশ ছাড়াও ভারতের পশ্চিমবঙ্গ, আসামে তৈরি হয়েছে তার অগণিত ভক্ত। তার আবেদন তৈরি হয়েছে বলিউডেও। ‘হাঞ্চ’ নামের একটি বলিউড সিনেমায় কণ্ঠ দেবেন তিনি। আর টিভি।

গেল সন্ধ্যায় রাজধানীর মগবাজারে এক সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে ভারতের গ্রিবস মিউজিকের ব্যানারে আসিফ আকবরের নতুন গান ‘অভিনয়’ মুক্তি পায়। এসময় উপস্থিত ছিলেন আসিফ আকবর, দেবাশীষ বিশ্বাস, ইথুন বাবু, তরুণ মুন্সী, প্লাবন কোরেশীসহ অনেকে। গ্রিবস মিউজিকের পক্ষ থেকে ছিলেন ফরিদ উদ্দিন, প্রীতম ও জাকির।

বক্তব্যে গ্রিবস মিউজিকের বাংলাদেশের চেয়ারম্যান ফরিদ উদ্দিন আসিফ আকবরের বলিউড সিনেমায় কণ্ঠ দেয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করেন। তিনি বলেন, দুই বাংলাতেই আসিফ ভাই বেশ জনপ্রিয়। তার গান এতোদিন বাংলাদেশের মানুষ শুনেছে, এবার তাকে নিয়ে একটু অন্যরকম কিছু করতে যাচ্ছি। ‘হাঞ্চ’ নামের একটা হিন্দি ছবি করতে যাচ্ছি আমরা। এই ছবিতে আসিফ ভাই গান করবেন। এ বিষয়ে আসিফ ভাইও সম্মতি দিয়েছেন। এবার আসিফ ভাইয়ের গান দিয়ে আমরা মুম্বাই মাতাবো।

গীতিকবি প্রীতম বলেন, আসিফ ভাইয়ের সঙ্গে পরিচয় হয়েছে বেশ কয়েকবছর। তার গানের ভক্ত আমি। আমি মনে করি, বাংলা গানে যা করার অলরেডি তা তিনি করে দেখিয়েছেন। এবার তাকে আরও বিস্তৃত করে দেখতে চাই। আমার ধারণা তার ভক্তরাও এটা চায়। তাই খুব শিগগিরই তাকে নিয়ে হিন্দি ছবির একটি গান করতে যাচ্ছি। সবাই আশীর্বাদ করবেন।

বলিউড সিনেমায় শব্দ প্রকৌশলী হিসেবে পুরস্কারপ্রাপ্ত জাকির বলেন, আমার বাড়ি আসামে। আমি ছোট থেকে আসিফ ভাইয়ের ‘ও প্রিয়া তুমি কোথায়’ গানটি শুনে বড় হয়েছি। আমাদের ওখানে তার অনেক ভক্ত আছে। আশা করছি আমরা নতুন কিছু সৃষ্টি করতে পারবো। ইথুন বাবু আসিফ আকবরের নতুন পদচারণার জন্য ভালোবাসা ও শুভকামনা জানান।

আসিফ আকবরকে শুভেচ্ছা জানিয়ে দেবাশীষ বিশ্বাস বলেন, বাংলায় গান করেন এমন তিনজন শিল্পীর কথা আমি বলবো, যারা স্টুডিওতে গান করতে এলে স্টুডিও শান্ত হয়ে যায়। তারা হলেন কুমার বিশ্বজিৎ, কুমার শানু ও আসিফ আকবর।

অনুষ্ঠানে নিজের নতুন গান ও বলিউডে গান করা প্রসঙ্গে আসিফ আকবর বলেন, শ্রী প্রীতমের সঙ্গে অনেকদিনের পরিচয়। তাকে প্রথমে দেখে আমার মনে হয়েছে তার মধ্যে নতুন কিছু আছে। তার সঙ্গে বেশ কিছু কাজ করেছি। বলিউড ছবিতে গাওয়ার বিষয়ে আমি ভড়কে যাই। আমার ছেলেকে বিষয়টি জানাই। যেহেতু সে বড় হয়েছে। তার সঙ্গে অনেক কিছু ভাগাভাগি করি। সে আমাকে বলে বাবা ঠিক আছে। আমিও সম্মতি দিই।

২০০১ সালের জানুয়ারি মাসের ঘটনা। রাজধানী ঢাকাসহ দেশের অলিগলিতে সুরের কম্পন তুলেছিলো জনপ্রিয় সঙ্গীতশিল্পী আসিফ আকবরের ‘ও প্রিয়া তুমি কোথায়’ গানটি। মুক্তির পর থেকে আলোচিত হয়েছিল এই গানের অ্যালবাম। একে একে বিক্রি হয় ৬০ লাখেরও বেশি অ্যালবাম। আসিফ আকবরকে তৈরি করেছে বাংলা গানের রাজপুত্ররূপে। ইতিমধ্যে ক্যারিয়ারের উনিশ বছর পার করেছেন আসিফ আকবর। সঙ্গীত প্রিয়দের এখনও উপহার দিচ্ছেন জনপ্রিয় গান। সম্পাদনা : রেজাউল আহসান

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত