প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

১০১ টাকা দেনমহরে বিয়ে হয়েছিলো সিমলা-পলাশের

বিনোদন প্রতিবেদক : দীর্ঘ সময় পর আবারো আলোচনায় জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার প্রাপ্ত চিত্রনায়িকা সিমলা। আলোচনার কেন্দ্রবিন্দুতে পরিণত হন তার সাবেক স্বামী পলাশের বিমান ছিনতাইয়ের চেষ্টার কারণে। সিমলার প্রেমে ব্যর্থ হয়েই নাকি বিমান ছিনতাইয়ের চেষ্টা করেছিলেন কমান্ডো অভিযানে নিহত পলাশ।

সেই পলাশের সাথে ১০১ টাকা দেনমহর ধ্যার্য বিয়ে করেছিলেন সিমলা। বিয়ের হলফনামায় সিমলার জন্মসাল উল্লেখ করা আছে ৪ঠা ডিসেম্বর ১৯৮২ আর পলাশের জন্ম তারিখ আছে ১৯৯১ সালের ১লা জানুয়ারি।

তাদের হলফ নামার জন্ম তারিখ দিয়ে বিশ্লেষণ করলে দেখা যায় সিমলার চেয়ে পলাশ ৮ বছর ২৮ দিনের ছোট। কাবিন নামায় পলাশের ঠিকানা দেয়া আছে- মোহম্মদ পলাশ আহমেদ, পিতার নাম- মো. পিয়ার জাহান, মাতার নাম-রেনু বেগম, গ্রাম-দুধঘাটা, পোস্ট-মঙ্গলের গাঁও, থানা-সোনারগাঁও, জেলা-নারায়ণগঞ্জ।

অন্যদিকে সিমলার ঠিকানা দেওয়া আছে, সামসুন নাহার সিমলা, পিতার নাম- মৃত মিয়া আব্দুল মাজেদ, মাতা- নুরুন নাহার, গ্রাম-শৈলকুপা, পোস্ট-শৈলকুপা, থানা-শৈলকুপা, জেলা-ঝিনাইদহ।

২০১৭ সালের ১২ই সেপ্টেম্বর তাদের প্রথম দেখা হয়। নিজের অভিনীত একটি চলচ্চিত্রের পরিচালকের বাসার এক অনুষ্ঠানে প্রথম পরিচয়। ২০১৮ সালের ৩রা মার্চ ঢাকা নোটারি পাবলিকের কার্যালয়ে উপস্থিত হয়ে তারা বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হন। ওই বছরের ৬ই নভেম্বর তাদের বিচ্ছেদ হয়। বিচ্ছেদের কারণ হিসেবে চিত্রনায়িকা সিমলা বলেছেন, পলাশ মানসিক ভারসাম্য হারিয়ে ফেলার কারণেই আমি চার মাস আগে তাকে ডিভোর্স দিয়েছি।

প্রঙ্গত, গত শনিবার (২৪ ফেব্রুয়ারি) বিকেল ৫টা ৪০ মিনিটের দিকে চট্টগ্রামের শাহ আমানত আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের একটি ফ্লাইট (বিজি-১৪৭) জরুরি অবতরণ করে। ওই উড়োজাহাজে ১৩৪ জন যাত্রী ও ১৪ জন ক্রু ছিলেন। বিমানটি চট্টগ্রাম বিমানবন্দরে অবতরণের পর তারা সবাই অক্ষত অবস্থায় নেমে আসেন। কেবিনক্রুদের জিম্মি করা হয়েছিল। তবে ছিনতাইকারী কোনও যাত্রীর ক্ষতি করেননি। লে. কর্নেল ইমরুলের নেতৃত্বে ৮ মিনিটের অভিযানকালে তিনি নিহত হন।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত