প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

পরিবারের সঙ্গে সম্পর্ক ছিল না, পলাশ উচ্ছৃঙ্খল ছিল বললেন বাবা পিয়ার (ভিডিও)

মো. তৌহিদ এলাহী: বিমান ছিনতাইয়ের চেষ্টাকালে কমান্ডো অভিযানে নিহত পলাশ আহমেদকে শনাক্ত করেছে তার পরিবার। বাড়ি নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁওয়ের দুধঘাটা গ্রামে। পরিবারের সঙ্গে প্রায় সম্পর্কহীন পলাশ উচ্ছৃঙ্খল ছিল বলে জানিয়েছে তার বাবা। তিনি জানান, এক বছর আগে চিত্রনায়িকা শিমলাকে বিয়ে করে পলাশ।

নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁওয়ের দুধঘাটা গ্রামের বাসিন্দা ও মুদি দোকানদার পিয়ার জাহান সরদারের চার সন্তানের মধ্যে পলাশ আহমদ দ্বিতীয়। পিয়ার জাহান-রেনু দম্পতির একমাত্র ছেলে পলাশ এবং বাকি ৩ জন মেয়ে।

নিহত পলাশ আহমদের বাবা পিয়ার জাহান বলেন, কলেজে ভর্তি হওয়ার পর থেকে কথা শুনতো না, একাই বিয়ে করেছিল। টাকা পয়সা নষ্ট করতো দেখে আমি বাড়ি থেকে বের করে দেই।

গত শুক্রবার (২২ ফেব্রুয়ারি) দুবাই যাওয়ার কথা বলে বাড়ি থেকে ঢাকায় যায় পলাশ। উচ্ছৃঙ্খল জীবনের অধিকারী পলাশ ছিল পরিবারের সঙ্গে প্রায় সম্পর্কহীন। তবে একমাত্র ছেলে হওয়ায় বাবা-মায়ের নিজের সবটুকু দিয়ে চেষ্টা ছিল ছেলেকে মানুষ করার।

নিহত পলাশ আহমদের বাবা পিয়ার জাহান বলেন, শিমলা ১০ মাস আগে আমাদের বাড়ি আসছিল, রাতে আসছিল আবার রাতেই চলে যায়। এক দেড়মাস পর আবার আনছিল। এরমধ্যে আমরা ফেসবুকে দেখেছি পলাশের সাথে শিমলার বিয়ে হয়ে গেছে।

স্থানীয় তাহেরপুর সিনিয়র মাদ্রাসা থেকে ২০১১ সালে দাখিল পাস করে পলাশ আহমেদ। পরে সোনারগাঁও বিশ্ববিদ্যালয় কলেজে উচ্চ মাধ্যমিককে ভর্তি হলেও প্রথম বর্ষেই পড়াশোনা ছেড়ে ঢাকায় চলে যায় সে। যুক্ত হয় ঢাকায় গান ও অভিনয়ের সঙ্গে। এক বছর আগে বিয়ে করে চিত্রনায়িকা শিমলাকে। এটিই তার জীবনের কাল বলে দাবি এলাকাবাসীর।

এলাকাবাসীরা বলেন, দুবাই, মালয়েশিয়া গেছে বিভিন্ন দেশ ঘুরছে। কোথাও থাকে না একমাস দুইমাস থেকে চলে আসে। বাবার কাছ থেকে টাকা নিয়ে গান বাজনার কাজ করতো। এলাকাবাসী আরো বলেন, এঘটনায় শিমলার সাথে কথা বললে জানা যাবে কি হয়েছে।

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে মাহি বি জাহান নামে পলাশ আহমদের একটি অ্যাকাউন্ট আছে। ওই অ্যাকাউন্টে দেয়া ছবিগুলো তার বাবা পিয়ার জাহান শনাক্ত করেন বলে জানায় পুলিশ।

নারায়ণগঞ্জ পুলিশ সুপার হারুন অর রশিদ বলেন, পলাশ এলাকাবাসীর কাছ থেকে বিভিন্ন সময় টাকা পয়সা নিত দুবাই যাওয়ার জন্য। পলাশের প্রতারণার একটা অভ্যাস ছিল।

এরআগে, ২০১৪ সালে বগুড়ার সদর উপজেলায় মেঘলা নামে একজনকে বিয়ে করেন পলাশ। পরে তাদের ডিভোর্স হয়ে যায়। তবে তাদের ৪ বছরের একটি ছেলে সন্তান রয়েছে বলে পারিবারিক সূত্রে জানা গেছে। সূত্র: সময় টিভি

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত