প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

২০১২ সালে এক কিশোরীকে অপহরণ করেছিল পলাশ

মাসুদ আলম : ১৮ বছর বয়সে এক কিশোরীকে অপহরণের অভিযোগে র‌্যাবের হাতে গ্রেফতার হয়েছিল উড়োজাহাজ ছিনতাই চেষ্টাকারী পলাশ আহমেদ ওরফে মাহাদী। ওই মামলায় ২০ দিন কারাগারে ছিল সে। ২০১২ সালের ২২ ফেব্রুয়ারি দেলোয়ার নামে এক ব্যক্তি তার মেয়েকে অপহরণের অভিযোগে পলাশের বিরুদ্ধে মামলা করেন। ওই বছরের ২৮ মার্চ র‌্যাব তাকে গ্রেফতারের পর অপহৃত কিশোরীকে উদ্ধার করে।

র‌্যাবের মিডিয়া শাখার পরিচালক মুফতি মাহমুদ খান বলেন, র‌্যাবের ক্রিমিনাল ডেটাবেইজ অনুযায়ী তার জন্মসাল ১৯৯৪। এক কিশোরীকে অপহরণের ঘটনায় পলাশ আট লাখ টাকা মুক্তিপণ দাবি করেছিল বলে ভিকটিমের পরিবার তখন অভিযোগ করে। পরে তথ্য প্রযুক্তির সহায়তায় ভিকটিমকে উদ্ধার এবং নেমরা মারমা নামে এক সহযোগীসহ পলাশকে গ্রেফতার করা হয়েছিল।

পলাশের বাবা পিয়ার জাহান সরদার বলেন, ওই মেয়ের সঙ্গে পলাশের ভালোবাসা ছিল। মেয়ের বাবা মামলা করেছিল। সেই মামলায় পলাশ ২০ দিন কারাগারে ছিল। পরে জামিন ছাড়িয়ে নেই। আমার একটাই ছেলে। আমরা ওই মেয়ের সঙ্গে বিয়ে দিতে রাজি ছিলাম। কিন্তু মেয়ের বাবা রাজি ছিল না। পরে আপসের মাধ্যমে তারা মামলাটা তুলে নেয়।

গত রোববার চট্রগ্রামের শাহ আমানত আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে বাংলাদেশ বিমানের ময়ূরপঙ্খী উড়োজাহাজ ছিনতাইয়ের চেষ্টাকালে কমান্ডো অভিযানে নিহত পলাশ।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত