প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

প্রেসক্রিপশন ছাড়াই এন্টিবায়োটিক বিক্রি বন্ধ করতে হবে: প্রাণিসম্পদ অধিদপ্তর

তরিকুল ইসলাম : প্রাণিসম্পদ অধিদপ্তরের (ডিএলএস) মহাপরিচালক ডা. হীরেশ রঞ্জন ভৌমিক বলেছেন, প্রেসক্রিপশন ছাড়া এন্টিবায়োটিক বিক্রি নিষিদ্ধ হলেও ওষুধের দোকানে গেলেই এন্টিবায়োটিক পাওয়া যাচ্ছে। এটি বন্ধ করতে হবে। ড্রাগ অথরিটিকে এ ব্যাপারে আরও কার্যকর ভূমিকা রাখতে হবে।

সোমবার জাতীয় প্রেসক্লাবে অনুষ্ঠিত ‘পোল্ট্রি ফর হেলদি লিভিং’ শীর্ষক গোলটেবিল বৈঠকে যোগ দিয়ে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ কথা বলেন প্রাণিসম্পদ অধিদপ্তরের (ডিএলএস) মহাপরিচালক।

তিনি বলেন, প্রাণিজ আমিষের মান নিশ্চিতকরণে পশু ও মৎস্য খাদ্য আইন প্রণয়ন করেছে সরকার। এর পাশাপাশি পোল্ট্রি উন্নয়ন নীতিমালা সংশোধনেরও কাজ চলছে। প্লাস্টিকের ডিম নিয়ে যা হচ্ছে তা প্রচারণা ছাড়া আর কিছুই নয়। এসডিজি বাস্তবায়ন করতে হলে সরকার, বেসরকারি উদ্যোক্তা ও খামারিদের সমন্বিতভাবে কাজ করতে হবে। সরকারের নির্বাচনী ইশতেহারে পুষ্টির নিশ্চয়তা বিধানের কথা বলা হয়েছে। শুধু দানাদার খাদ্য খেলে এ লক্ষ্য অর্জিত হবেনা, আমিষ জাতীয় খাদ্য গ্রহণের হার বাড়াতে হবে।

ওয়াপসা বিবি’র সভাপতি শামসুল আরেফিন খালেদ বলেন, নিরাপদ পোল্ট্রি উৎপাদনে এখন অনেক বেশি গুরুত্ব দেয়া হচ্ছে। ২০২৪ সালের মধ্যে শতভাগ এন্টিবায়োটিক মুক্ত ডিম ও মাংস উৎপাদন করবে বাংলাদেশ শুধু ভাত খেয়ে উন্নত জাতি গঠন করা সম্ভব নয়। পুষ্টির চাহিদা পূরণে ডিমের কোন বিকল্প নেই।

বাংলাদেশ লাইভস্টক রিসার্চ ইনস্টিটিউটের মহাপরিচালক ড. নাথুরাম সরকার বলেন, তথ্য বিভ্রাটের কারণে মানুষের মাঝে বিভ্রান্তি তৈরি হয়। এতে সাধারন মানুষ ডিম ও মুরগির মাংস খাওয়া কমিয়ে দিতে পারে। তাই সংবাদ পরিবেশনের আগে খেয়াল রাখতে হবে তা যেন অহেতুক আতংকের কারণ না হয়।

আগামী ৫-৬ মার্চ ঢাকার লা মেরিডিয়ান হোটেলে ‘আন্তর্জাতিক পোল্ট্রি সেমিনার’ এবং ৭, ৮ ও ৯ মার্চ বসুন্ধরা কনভেনশন সিটিতে ‘১১তম আন্তর্জাতিক পোল্ট্রি শো’ অনুষ্ঠিত হবে। সেমিনারে মোট ৯৯টি সায়েন্টিফিক পেপার উপস্থাপন করা হবে। পোল্ট্রির পুষ্টি ও ব্যবস্থাপনা এবং পোল্ট্রি ব্রিডিং ও জেনেটিকস বিষয়ে ১৩ জন বিজ্ঞানী ও গবেষক এবার বাংলাদেশে আসছেন বলেও জানানো হয়।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত