প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

বাংলাদেশ নিয়ম ভিত্তিক বহুপাক্ষিক ব্যবস্থার প্রবক্তা : জাতিসংঘে বাংলাদেশ

তরিকুল ইসলাম : বাংলাদেশ একটি নিয়ম-ভিত্তিক বহুপাক্ষিক ব্যবস্থার প্রবক্তা। এই ব্যবস্থা জাতিসমূহের সার্বভৌমিক সমতাকে সবসময়ই সমুন্নত রাখে এবং অভ্যন্তরীণ বিষয়ে কোনো ধরনের হস্তক্ষেপ সমর্থন করে না। জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান অনুসৃত পররাষ্ট্রনীতি ‘সবার সঙ্গে বন্ধুত্ব, কারও সঙ্গে বৈরিতা নয়’ থেকে বাংলাদেশ এই বহুপাক্ষিক দৃষ্টিভঙ্গিতে অনুপ্রাণিত হয়েছে।

জাতিসংঘ সদরদপ্তরে ইন্টার-পার্লামেন্টারি ইউনিয়নের (আইপিইউ) বার্ষিক সংসদীয় শুনানিতে বহুপাক্ষিকতাবাদকে সমুন্নত রাখার অঙ্গীকার করেছে বাংলাদেশ। গত ২১ ও ২২ ফেব্রুয়ারি জাতিসংঘ সদরদপ্তরে আইপিইউর বার্ষিক সংসদীয় শুনানি অনুষ্ঠিত হয়। এতে যোগ দিয়ে বাংলাদেশ এ অঙ্গীকার করেছে বলে জানিয়েছে জাতিসংঘে বাংলাদেশের স্থায়ী মিশন।

রোববার মিশন থেকে পাঠানো বার্তায় বলা হয়, বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি ডা. এ এফ এম রুহুল হক এমপির নেতৃত্বে একটি প্রতিনিধি দল এতে যোগ দিয়ে বহুপক্ষবাদ এবং বহুভাষিক সংস্কৃতির চর্চা ও অগ্রগতির ক্ষেত্রে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সরকারের গৃহীত সময়োপযোগী পদক্ষেপের কথা তুলে ধরেন। শুণানিতে উঠে আসে বিভিন্ন সম্প্রদায়ের মানুষের স্বতন্ত্র পরিচয়, ভাষা, সংস্কৃতি, ভূমি ও সম্পদ সংরক্ষণের মাধ্যমে একটি সমেত ও শান্তিপূর্ণ সমাজ বিনির্মাণে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার প্রতিশ্রুতি এবং তা বাস্তবায়নের কথা।

এছাড়া আদর্শ বিচ্যুত রাজনীতি, রাজনৈতিক তহবিলের ঘাটতি, ভূ-রাজনৈতিক বাস্তবতা, প্রাতিষ্ঠানিক দুর্বলতা, এসডিজি ও শান্তিরক্ষাসহ প্রধান বহুপাক্ষিক এজেন্ডাসমূহের বাস্তবায়নে সম্পদের ঘাটতি এবং অভিবাসনের বৈশ্বিক কম্প্যাক্ট ও জলবায়ু পরিবর্তন বিষয়ক প্যারিস চুক্তির বাস্তবায়নে সহায়তার অভাব। অপেক্ষাকৃত দুর্বল ও অরক্ষিত দেশ, জাতি ও জনগোষ্ঠীকে সুরক্ষিত করতে বহুপাক্ষিকতাবাদের এসব চ্যালেঞ্জ মোকাবিলায় বিশ্ববাসীকে একতাবদ্ধ হওয়ার আহ্বান জানান ডা. এ এফ এম রুহুল হক।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত