প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

খুলনার ডুমুরিয়া উপজেলায় সড়কের প্রায় সাড়ে ৩০০ গাছ হঠাৎ করেই মারা যাচ্ছে, পদক্ষেপ নিচ্ছেনা প্রশাসন

নুর নাহার: খুলনার ডুমুরিয়া উপজেলার সড়কের পাশে থাকা বড় বড় গাছগুলো হঠাৎ করেই মারা যাচ্ছে। প্রায় ৬-৭ মাস ধরে এ উপজেলার কয়েকটি ইউনিয়নের গাছে মড়ক লাগা শুরু হয়। উপজেলা প্রশাসনসহ সংশ্লিষ্ঠ দপ্তরে জানানো হলেও তারা কোনো পদক্ষেপ নিচ্ছে না বলে দাবি করেছেন এলাকাবাসি। সময় টিভি।

ডুমুরিয়া উপজেলার সড়ক ও আঞ্চলিক সড়কের পাশে রয়েছে সারি সারি সিরিশ, কড়াই, ও বাবলাসহ বেশ কিছু গাছ। প্রকৃতির ভারসাম্য রক্ষার পাশাপাশি এলাকায় সড়কের সুন্দর্য্য বৃদ্ধি করে এসব গাছ। এ উপজেলার সাহসি ইউনিয়নের বসুন্দিয়া বাজার থেকে চটচটিয়া এলাকা পর্যন্ত এবং সদর ইউনিয়ন থেকে সরপপুর ইউনিয়নের কয়েকটি জায়গায় কয়েক শ গাছের পাতা ঝরা শুরু হয়। কিছুদিন পর গাছের ডালপালা ভাঙ্গতে থাকে। কোনো কোনো গাছ নিজে থেকেই উপড়ে পড়ে রাস্তা ওপর। এলাকাবাসিরা এ সমস্যার তাড়াতাড়ি সমাধান চান।

স্থানীয়রা বলছেন, প্রথমে গাছের পাতা শুকিয়ে পড়ে যেতো। শেষ পর্যায়ে পুরো গাছ শুকিয়ে গেছে। দিন দিন এটা বাড়ছে। আমাদের মনে হয় যে, এর আসল কারণ বের করে এর প্রতিকার করা দরকার। তারা আরো বলেন,রাস্তার পাশে যদি গাছ না থাকে পরিবেশ ভালো থাকে না।
গাছ মারা যাওয়াটা জলবায়ুর পরির্বতনের কারনে হতে পারে বলে ধারনা করছেন বিশেষজ্ঞরা।

খুলনা বিশ^বিদ্যালয়ের পরিবেশবিজ্ঞান ডিসিপ্লিন এর প্রফেসর ড. আব্দুল্লাহ হারুন চৌধুরী বলেন, এখানে প্রচুর পরিমাণে গাছ লাগাতে হবে।
যাতে জলবায়ুর কারণে যে পরিবেশের পরিবর্তন হচ্ছে এর ভারসাম্য বজায় রাখতে বেশি বেশি গাছ লাগাতে হবে। উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা, মোসা. শাহনাজ বেগম বলেন, আমরা যদি সময় থাকতে গাছগুলো পরিচর্যা করতে না পারি পরবর্তীতে জ¦ালানি ছ্ড়াা আর কিছুই হবে না।
স্থানীয়দের মতে, অজ্ঞাত রোগে কয়েক মাসে প্রায় সাড়ে ৩০০ গাছ মারা গেছে।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত