প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

নিমতলীর দুর্ঘনার ৮ বছর পর রাসায়নিক কারখানা স্থানান্তর প্রকল্প অনুমোদন হলেও বরাদ্দ নেই, দাবি কামরুল ইসলামের

কেএম নাহিদ: জাতীয় প্রেসক্লাবের সাবেক সম্পাদক কামরুল ইসলাম বলেছেন, আমরা অতীত থেকে শিক্ষা নেই না, অতীতের দুর্ঘটনা থেকেও শিক্ষা নেই না। চকবাজারের ঘটনা একটি জ্বলন্ত উদাহরণ। নিমতলীর দুর্ঘনার ৮ বছর পর রাসায়নিক কারখানা স্থানান্তর প্রকল্প অনুমোদন হলেও বরাদ্দ নেই, দাবি করেন । শনিবার ডিবিসির সংবাদ সম্প্রসারণ অনুষ্ঠানে এ কথা বলেন তিনি।

কামরুল ইসলাম বলেন, মজার ব্যাপার হলো এ সুপারিশ অনুযায়ী প্রকল্প অনুমোদন করে শিল্পমন্ত্রনালয় সেই প্রকল্পটা একনেকে অনুমোদন হয়, ২০১৮ সালের অক্টোবর মাসে। ৮ বছর লেগেছে ২০০ কোটি টাকার একটি প্রকল্পো অনুমোদন করতে। আর একটি মজার ব্যাপার হলো এবছর বাজেটে আবার অর্থ বরাদ্দ করা হয়নি। তাহলে এই ব্যবসায়ীরা যে সেখানে যাবে কিভাবে যাবে? সেখানে জমি অধিগ্রহণ করা হয়নি। কোন অবকাঠামো স্থাপনা এখনো শুরুই হয়নি। তাহলে আমরা ব্যবসায়ীদের দোষদিচ্ছি ওই এলাকার মানুষদের দোষদিচ্ছি। রাষ্ট্র কী করেছে? রাষ্ট্রের কীকোন দায় নেই? যে মানুষগুলো মারা গেলো রাষ্ট্র এর দায় এড়াতে পারে না।

তিনি বলেন, মানুষগুলো যে মারা গেলো রাষ্ট্র এর দায় এরাতে পারে না। সরকার এখানে অবকাঠামো স্থাপনা গড়ে তুলতে ব্যর্থ হয়েছে। রাষ্ট্র এই মৃত্যুরদায় নিতে হবে, রাষ্ট্র কোন গুরুত্ব দেয়নি। এফবিসিসিআইর ব্যবসায়ীদেরও দায় এ নিতে হবে, কারন তারা শুধু মুনাফাটা বুঝেছে। ২০০৯ সালের এরকম একটা দুর্ঘটনার পর একটা চমৎকার সুপারিশমালা দেয়া হয়,১৯টি সুপারিশের ৬টিতে এ কারখানা এখানে,থাকবে কী না কোথায় থাকবে,এ ব্যাপারে দিকনির্দেশনা দেয়া হয়, সেই সুপারিশমালা অনুযায়ী যদি কাজ হোতো, তাহলে পুরান ঢাকায় অন্তত এরকম দুর্ঘটনা হতো না, বলে আমি মনে করি।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত