প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

দু’দিনের প্রস্তুতি ম্যাচটি ড্র হলো টাইগারদের

শিউলি আক্তার: নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে দু’দিনের প্রস্তুতি টেস্ট ম্যাচে প্রথমদিন ব্যাটিং লাইন আপটাকে ঝালিয়ে নিলেও বোলিংয়ে প্রস্তুতি নিতে ব্যর্থ হয় বাংলাদেশ। দ্বিতীয় দিন বোলিংয়ে ১২ ওভার শেষে বৃষ্টির কারণে ম্যাচটি ড্র হয়।

টসে জিতে ব্যাট করতে নেমে ৬ উইকেট হারিয়ে ৪১১ রান সংগ্রহ করে প্রথমদিন শেষ করে টাইগাররা। দ্বিতীয় দিন কিউই একাদশ ব্যাট করতে নেমে ১২ ওভার খেলে দু’উইকেট হারিয়ে ৫৭ রান করে। তারপরেই বৃষ্টি হানা দেয় ম্যাচটিতে।

প্রায় দুই ঘণ্টা অপেক্ষা শেষে ম্যাচটির ইতি টানার সিদ্ধান্ত নেয় ম্যাচ রেফারি। ম্যাচটি ড্র হওয়ার ফলে প্রস্তুতি অসম্পন্ন রয়ে যায় টাইগার বোলারদের।

বোলিংটা ভালোই শুরু করেছিল বাংলাদেশের বোলাররা। দিনের চতুর্থ বলেই নিউজিল্যান্ড একাদশের ওপেনার জেজেএনপি ভুলার উইকেট তুলে নেয় বাংলাদেশ। প্রথম ওভারেই ভুলাকে শূন্য রানে সাজঘরে ফিরিয়ে শুভ সূচনা করেন মোস্তাফিজুর রহমান।

উইকেটরক্ষক লিটন কুমার দাসের হাতে ক্যাচ দিয়ে ফেরেন ভুলা। এরপর তিন নম্বরে ব্যাটিং করতে নামেন দলের অধিনায়ক বি পপলি। আরেক ওপেনার ফ্লেচার এবং পপলি মিলে দলের রান বাড়িয়ে চলছিলেন। একশ’র উপরে স্ট্রাইক রেটে ব্যাটিং করে যাচ্ছিলেন ওপেনার ফ্লেচার।

৩২ বলে ৪৩ রানে ব্যাটিং করা বিধ্বংসী এই ডানহাতি ব্যাটসম্যানকে সরাসরি বোল্ড করে ফেরান তরুণ পেসার এবাদত হোসেন।

নিউজিল্যান্ডের বৈরি কন্ডিশনে টাইগার বোলাররা প্রস্তুতি ঠিকভাবে নিতে না পারলেও ব্যাটসম্যানরা নিয়েছে পুরোদমে প্রস্তুতি। এক দিনেই ৪১১ রান সংগ্রহ করেছে তারা।

উইকেটে নাম সব ব্যাটসম্যানই রান পেয়েছেন এদিন। দুই অংকের ঘরে পা রেখেছেন ব্যাটিংয়ের সুযোগ পাওয়া সব ব্যাটসম্যানই। তামিম ইকবাল, সাদমান ইসলাম, লিটন দাস, মাহমুদুউল্লাহ রিয়াদরা সকলেই রান পেয়েছেন।

তবে ব্যাট হাতে বাকিদের তুলনায় কিছুটা নিস্প্রভ ছিলেন বাঁহাতি ব্যাটসম্যান মমিনুল হক। মাত্র ২০ রানের ইনিংস খেলেছেন তিনি। দলের হয়ে সর্বোচ্চ ৬৭ রানের ইনিংস খেলেছেন সাদমান। লিটন খেলেছেন ৬৩ রানের ইনিংস, রিয়াদ খেলেছেন ৫৯ রানের ইনিংস।

নিউজিল্যান্ডের হয়ে সর্বোচ্চ দুই উইকেট পেয়েছেন বিপি কোবার্ন। একটি করে উইকেট নিয়েছেন বিভি সিরস, বি এন জে লকরোজ, ই জে নাটাল।

সর্বাধিক পঠিত