প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

এবার ভেনিজুয়েলার কলাম্বিয়া সীমান্তে তুমুল সংঘর্ষ, নিহত ৪

আব্দুর রাজ্জাক : এবার ভেনিজুয়েলার কলাম্বিয়া সীমান্তে দেশটির বিরোধী নেতা হুয়ান গুয়াইদোপন্থীদের সঙ্গে তুমুল সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। এতে অন্তত ৪ জন নিহত হয়েছে এবং আরো ২ শতাধিক আহত হয়েছে বলে জানিয়েছে কলাম্বিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রণালয়। সীমান্তবর্তী এলাকায় সংঘর্ষে মদদ দেয়ার অভিযোগে বোগোতার সঙ্গে কূটনৈতিক সম্পর্ক ছিন্ন করেছেন ভেনিজুয়েলার প্রেসিডেন্ট নিকোলাস মাদুরো। গার্ডিয়ান, বিবিসি, সিএনএন, আল-জাজিরা, ইয়ন, রয়টার্স

শনিবার কলাম্বিয়া সীমান্ত দিয়ে যুক্তরাষ্ট্রের সহায়তাগুলো গ্রহণ করার জন্য গেলে গুয়াইদো সমর্থকদের বাধা দেয় ভেনিজুয়েলার সৈন্যরা। স্বেচ্ছাসেবীদের ওপর নিরাপত্তা বাহিনীর সদস্যরা টিয়ারগ্যাস, রাবার বুলেট ও গুলি চালিয়েছে বলে অভিযোগও করা হয়েছে।

সীমান্ত এলাকায় নিরাপত্তা বাহিনীর সঙ্গে সংঘর্ষে শনিবার ৪জন সহ এ পর্যন্ত ৬ জন নিহত হয়েছে। তবে এবারের সংঘর্ষে গুয়াইদোর বহু সমর্থক আহত হয়েছে। তাদের অন্তত ১৮ জন গুলিবিদ্ধসহ আরো ৩৭ জনকে হাসপাতালে নেয়া হয়েছে। মোট আহতের সংখ্যা ২৮৫ জন ও আরো ৫১জনকে আটক করা হয়েছে বলে কলাম্বিয়া জানিয়েছে।

ভেনিজুয়েলা ও কলাম্বিয়ার সীমান্তবর্তী সান্তান্দার ব্রিজে ত্রাণবাহী ৩টি ট্রাক প্রথম তল্লাশি চৌকিতে পৌঁছালে তাতে টিয়ার গ্যাস ও রাবার বুলেট ছোড়া হয় এবং আগুন লাগিয়ে দেয়া হয়। এতে উভয় দেশের বেশ কয়েকজন আহত হয়েছে।

চৌকিতে সংঘর্ষের সময় ভেনিজুয়েলার ২০ জনেরও বেশি সীমান্ত বাহিনীর সদস্য কলাম্বিয়ায় পালিয়ে গেছেন এবং তারা সেখানে আশ্রয় চেয়েছেন। তাদের অনেকেই পক্ষ ত্যাগ করায় নিজ দেশের সৈন্যদের দ্বারা কাঁদানে গ্যাস ও রাবার বুলেটে আহত হয়েছেন বলে বোগোতা দাবি করেছে।

অন্যদিকে, মাদুরো বাহিনীর কড়া নজরদারি এড়িয়ে মার্কিন সহায়তার প্রথম একটি চালান ভেনিজুয়েলায় প্রবেশ করানো হয়েছে বলে গুয়াইদো জানিয়েছেন।

গুয়াইদো ভেনিজুয়েলার ব্রাজিল সীমান্ত দিয়েই মার্কিন সহায়তাগুলো দেশে এনেছেন বলে দাবি করেছেন, তবে ইতোমধ্যেই এই সীমান্তটি বন্ধ করে দিয়েছেন মাদুরো। যদিও ২টি ত্রাণবাহী ট্রাক ব্রাজিল সীমান্ত অতিক্রম করার পর ভেনিজুয়েলার কয়েক মিটার অভ্যন্তরে গিয়েই আটক হয় এবং তা গ্রহণ করতে আসা গুয়াইদো সমর্থকদেরও আটক করা হয়েছে বলে গণমাধ্যমগুলো জানিয়েছে।

ভেনিজুয়েলার নিরাপত্তা বাহিনীর প্রতিরোধের মুখে পড়ে গুয়াইদোর বহু সমর্থক মারাত্মকভাবে আহত হয়েছেন। অনেকেই চোখ হাড়িয়েছেন এবং আহতের সংখ্যা ৩শ ছাড়িয়ে যাবে বলে কলাম্বিয়া আশঙ্কা করছে।

এদিকে, মাদুরোকে কড়া ভাষায় সতর্ক করেছেন মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী মাইক পম্পেও। যারা দেশটিতে গণতন্ত্র পুন:প্রতিষ্ঠায় বাধা দিচ্ছে তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে বলে তিনি হুমকি দেন। তার এ বক্তব্যের প্রতিক্রিয়ায় মাদুরো বলেন, ভেনিজুয়েলায় সামরিক অভ্যুত্থানের উদ্দেশ্যেই সহায়তা পাঠানো হয়েছে। যুক্তরাষ্ট্র যদি আক্রমণ করে তাহলে ভেনিজুয়েলার সামরিক বাহিনী তার কঠোর জবাব দেবে বলে মাদুরো হুঁশিয়ারও করেন।

মাদুরো কারাকাসে একটি সমাবেশে অংশ নিয়ে সমর্থকদের উদ্দেশ্যে বলেন, ‘আমরা কলাম্বিয়ার সঙ্গে সকল কূটনৈতিক সম্পর্ক ছিন্ন করলাম। তারা যেনো ২৪ ঘন্টার মধ্যে তাদের দূতকে ভেনিজুয়েলা থেকে সরিয়ে নেয়।’

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত