প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

২০১৭ সালে এক লাখ ৩ হাজার ৭৬৯ রুপি কর দিয়েছেন ইমরান খান

নূর মাজিদ : ২০১৭ সালে পাকিস্তানের সরকারি কোষাগারে ১ লাখ রুপির সামান্য বেশি অর্থ জমা দিয়েছেন দেশটির বর্তমান প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান। ২০১৬ সালের তুলনায় সেই বছর ৩৫ শতাংশ কম কর দিয়েছেন তিনি। ২০১৬ সালে তিনি কর দেন ১ লাখ ৫৯ হাজার রুপি। ২০১৭ সালে তিনি কর দিয়েছেন ১লাখ ৩ হাজার ৭৬৯ রুপি। তবে সাবেক প্রধানমন্ত্রী নওয়াজ শরিফের প্রদত্ত করের পরিমাণ উল্লেখযোগ্য পরিমাণ কমেছে। ডন

২০১৬ সালে প্রধানমন্ত্রী হিসেবে দায়িত্বপালনের সময় নওয়াজ ২৫ লাখ রুপি কর দেন। কিন্তু, ২০১৭ সালে তার প্রদত্ত করের পরিমাণ ৮৬০ শতাংশ কমে আসে। ২০১৭ সালে তিনি মাত্র ২ লাখ ৬৩ হাজার রুপি কর দেন। অর্থনৈতিক কেলেঙ্কারিতে জড়িয়ে কারবাসের সময়েই তার প্রদেয় করের পরিমাণ কমে আসে। তবে একই সময় উচ্চ আদালতের নির্দেশে নওয়াজের পদত্যাগের পর প্রধানমন্ত্রীর দায়িত্বপালনকারী শহীদ খাকান আব্বাসির প্রদেয় করের পরিমাণ ১৬ শতাংশ বাড়ে। ২০১৬ সালে তিনি কর দিয়েছেন ২৬ লাখ ৫০ হাজার রুপি। ২০১৭ সালে তিনি কর দেন ৩০ লাখ ৮ হাজার রুপি।

গতকাল শনিবার পাকিস্তানের পার্লামেন্ট প্রকাশিত পঞ্চবার্ষিক আয়কর প্রতিবেদনে এসব তথ্য জানা যায়। সংসদ সদস্যদের প্রদত্ত করের পরিমাণ জনগণের সম্মুখে তুলে ধরাই এই প্রতিবেদনের মূল উদ্দেশ্য। দেশটির কেন্দ্রীয় রাজস্বমন্ত্রী হাম্মাদ আজহার এই প্রতিবেদন প্রকাশ করেন। সেখানে দেশটির জাতীয় আইন প্রনেতাদের জীবন-যাপনের মান, ব্যয় এবং তাদের প্রদেয় করের পরিমাণ প্রকাশ করা হয়। তবে বিলাসবহুল জীবনযাপনের তুলনায় অনেক সংসদ সদস্যের প্রদেয় করের পরিমাণের রাত-দিন পার্থক্য রয়েছে। কেন্দ্রীয় রাজস্ব বোর্ড জানায়, হাতে গোনা কিছু সংসদ সদস্য বাদে অধিকাংশই নিজেদের স¤পদের তুলনায় খুবই কম আয়কর দিয়েছেন। এই আয়করের অংক হাস্যকর বলেই নিন্দা করে রাজস্ব বোর্ড।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত