প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

ধামরাইয়ে দুই বাসের সংঘর্ষে নিহত ৩, আহত ৩০

রাসেল হোসেন: ঢাকার ধামরাইয়ে দুটি যাত্রীবাহি বাসের সংঘর্ষে ঘটনাস্থলে ২ জনের মৃত্যু হয়েছে। আর হাসপাতালে নেওয়ার পর একজনের মৃত্যু হয়। এঘটনায় আহত হয়েছে অন্তত আরও ৩০ জন। আহতদেরকে উদ্ধার করে ধামরাই উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সসহ বিভিন্ন হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এদের মধ্যে বেশ কয়েক জনের অবস্থা আশঙ্কাজনক বলে জানিয়েছে পুলিশ। শনিবার বিকেল তিনটার দিকে ধামরাইয়ে ঢাকা-আরিচা মাহাসড়কের বালিথা এলাকায় এ মর্মান্তিক সড়ক দুর্ঘটনা ঘটে।

নিহতের মধ্যে বাস যাত্রী মামুনের (২৫) বাড়ি সাতক্ষিরায়। অপরজন দুইজন এসপি গোল্ডেন লাইন পরিবহনের চালকের সহকারী ও যাত্রী। তবে তাৎক্ষনিকভাবে তাদের নাম জানাতে পারেনি পুলিশ।

থানা পুলিশ ও স্থানীয়রা জানায়, সাতক্ষীরা থেকে ছেড়ে আসা এসপি গোল্ডেন লাইন পরিবহনের দুরপাল্লার একটি যাত্রীবাহি বাস ঢাকায় যাচ্ছিলো। বাসটি ঢাকা-আরিচা মহাসড়কের বালিথা নামক স্থানে পৌঁছলে বিপরীত দিক থেকে আসা রাবেয়া পরিবহনের অপর একটি বাসের সঙ্গে মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। এঘটনায় বাসের একজন যাত্রী এবং এসপি গোল্ডেল লাইন পরিবহনের চালকের সহকারী ঘটনাস্থলেই মারা যায় এবং যাত্রী ধামরাই সরকারি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যায়। এছাড়াও সড়ক দুর্ঘটনায় আহত হয়েছে কমপক্ষে ৩০ জন। আহতদেরকে উদ্ধার করে ধামরাই উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সসহ বিভিন্ন হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এদের মধ্যে কয়েকজনের অবস্থা আশঙ্কাজনক হওয়ায় মৃতের সংখ্যা আরও বাড়তে পারে বলে ধারনা করছেন স্থানীয়রা।

ধামরাই ফায়ার সার্ভিসের স্টেশন কর্মকর্তা সাহেব আলী বলেন, সড়ক দূর্ঘনায় দুটি যাত্রীবাহি বাস দুমড়ে মুচড়ে যায়। আমরা খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পৌছে বাস দুটি কেটে ভিতর থেকে ১৪ জনকে জীবিত উদ্ধার করি এবং দুই জনের মৃতদেহ উদ্ধার করে পুলিশের কাছে হস্তান্তর করেছি। তবে শুনেছি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় একজনের মৃত্যু হয়েছে।

মানিকগঞ্জের গোলড়া হাইওয়ে থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোঃ লুৎফর রহমান বলেন, সড়ক দূর্ঘটনার খবর পেয়ে আমরা দ্রুত ঘটনাস্থলে যাই। এসময় ফায়ার সার্ভিসের সহযোগিতায় দুটি বাস কেটে ভিতর থেকে নিহত ও আহতদের উদ্ধার করা হয়। পরবর্তীতে দুর্ঘটনা কবলিত গাড়ি দুটি উদ্ধার করে থানায় আনা হলে সড়কটিতে যান চলাচল স্বাভাবিক হয়।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত