প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

রোনালদোর সাথে খেলতে চায় না রিয়াল

স্পোর্টস ডেস্ক : চ্যাম্পিয়ন্স লিগের শেষ ষোলোর প্রথম লেগে অ্যাটলেটিকো মাদ্রিদের কাছে জুভেন্টাস ২-০ গোলে হেরে যাওয়ায় উৎসব করেছে রিয়াল মাদ্রিদ! আশ্চর্যজনক হলেও এটাই সত্যি। নিজ নগরের বড় প্রতিদ্বন্দ্বী অ্যাটলেটিকোর জন্য শুভ কামনায় ব্যস্ত রিয়াল মাদ্রিদ। এসবকিছুর পেছনে একটাই কারণ, ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো!

বিষয়টা খোলাসা করা যাক। যদিও জুভেন্টাস প্রথম লেগে হেরেছে, ফিরতি লেগে তারপরও বড় জয় দিয়ে কোয়ার্টার ফাইনালে উঠতে পারবে না ইতালিয়ান জায়ান্টরা এমন কথা বুক হাত দিয়ে বলতে পারবে না জুভিদের বড় সমালোচকও। ধরা যাক, সেটাই ঘটল। সেক্ষেত্রে শেষ আটের ড্রতে রিয়ালের প্রতিপক্ষ হওয়ার দৌড়ে বড় নামটাই থাকবে জুভেন্টাস। লস ব্লাঙ্কোসদের জন্য যা বড় অস্বস্তির!

স্প্যানিশ সংবাদমাধ্যম এএস জানাচ্ছে, রিয়াল ড্রেসিংরুমের বেশিরভাগ খেলোয়াড়রই চান অসমাপ্ত কাজটা শেষ করুক অ্যাটলেটিকো। অর্থাৎ, জুভেন্টাসকে বিদায় করে দিক নগর প্রতিদ্বন্দ্বীরা। কারণ জুভরা যদি পরের রাউন্ডে উঠেই যায়, আর রিয়ালের মুখোমুখি হয়ে যায়, তাহলেই সমস্যা! বেশিরভাগ রিয়াল খেলোয়াড়রাই নাকি গত মৌসুমের সতীর্থ রোনালদোর বিপক্ষে খেলতে চান না।

আরেকটা কারণও আছে। রোনালদো যোগ দেয়ায় জুভেন্টাসের এবারের দলটা ইউরোপের সবচেয়ে ভারসাম্যপূর্ণ দল, শক্তিশালী তো বটেই। সেই দলটাকে যদি অ্যাটলেটিকো বিদায় করে দেয় তাহলে মূল লাভটা রিয়ালেরই। এই জুভেন্টাসের কাছেই ২০১৪-১৫ মৌসুমে শেষবার চ্যাম্পিয়ন্স লিগ থেকে বাদ পড়েছিল রিয়াল। সেবার রিয়ালের ঘাতক ছিলেন তাদের ঘরের ছেলে আলভারো মোরাতা।

একইভাবে দীর্ঘ ৯ মৌসুম রিয়ালের ঘরের ছেলে হয়ে খেলেছেন রোনালদো। পুরনো সতীর্থদের দুর্বলতা, শক্তির জায়গা তার চেয়ে আর কেইবা ভালো জানবেন! সেখানেই ভয় রিয়ালের খেলোয়াড়দের। এতদিন যেটা নিয়ে ভাবতে হয়নি সেটাই হবে মাথা ব্যথার বিষয়। কীভাবে রোনালদোকে আটকাতে হয় সেটাই যে এতদিন ভাবতে হয়নি রিয়ালের খেলোয়াড়দের!

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত