প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

সাহসী শিল্পমন্ত্রীকে অভিনন্দন

প্রভাষ আমিন : চকবাজারের চুড়িহাট্টায় বুধবার রাতে লাগা আগুন জ্বলেছে বৃহস্পতিবার সকাল পর্যন্ত। ২১ ফেব্রুয়ারি সূর্য উঠেছে শোকের চাদরে ঢেকে। ৭০টি লাশের ভার বইতে কষ্ট হচ্ছে বাংলাদেশের। বৃহস্পিতবার দিনভর মন্ত্রী, এমপি, মেয়র, আইজি থেকে শুরু করে সরকারের সংশ্লিষ্ট প্রায় সবাই ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন। গণমাধ্যম থেকে শুরু করে ফায়ার সার্ভিসের কর্তা-সবাই বলছিলেন আগুন এতো দ্রুত ছড়িয়ে যাওয়ার জন্য ঘটনাস্থলে থাকা কেমিক্যালের গোডাউনকে দায়ী করেন। সবার সম্মিলিত কণ্ঠের বিপরীতে ব্যতিক্রম ছিলেন শিল্পমন্ত্রী নুরুল মজিদ হুমায়ুন। একমাত্র তিনিই বললেন, এই অগ্নিকাণ্ডের সাথে কেমিক্যালের কোনো সম্পর্ক নেই। আমি কিন্তু শিল্পমন্ত্রীর কথা অবিশ্বাস করিনি। কারণ কিছু ঘটলে আমরা তদন্ত ছাড়াই পপুলার ধারনার পেছনে দৌঁড়াই। কানে হাত না দিয়ে, চিলের পেছনে ছুটি। হতে পারে শিল্পমন্ত্রী সাহসী, তিনি স্রোতের বিপরীতে সাঁতরাতেই ভালোবাসেন। কিন্তু খালি ব্যতিক্রমী হলেই তো হবে না, বিষয়টি বিশ্বাসযোগ্য ও তথ্যভিত্তিক হতে হবে।

কিন্তু ঘটনার দিন সকল টিভি চ্যানেল, অনলাইন, পরদিনের পত্রিকা, প্রত্যক্ষদর্শীদের বিবরণ শুনে অবশ্য শিল্পমন্ত্রীর কথায় আমি আস্থা রাখতে পারছি না। ফায়ার সার্ভিসও স্পষ্ট করে আগুন ছড়িয়ে পড়া এবং দীর্ঘ সময় জ্বলার জন্য কেমিক্যালকেই দায়ী করেছে। আর শিল্পমন্ত্রী হলেও তিনি কেমিক্যাল বিশেষজ্ঞ নয়। তাই প্রথম দিন তাকে সাহসী মনে হলেও, দ্বিতীয় দিনেই মনে হচ্ছে বোকা ও অস্বীকারপ্রবণ। এই অস্বীকারপ্রবণতা আমাদের দায়িত্বশীলড়ের বড় অস্ত্র। ২০১০ সালে নিমতলীর আগুনের পর পুরান ঢাকা থেকে কেসিক্যালের গোডাউন সরিয়ে নেয়ার সিদ্ধান্ত হয়েছিলো। তাদের পুনর্বাসনের দায়িত্ব শিল্প মন্ত্রণালয়ের। কিন্তু ৯ বছরে এ ক্ষেত্রে কোনো অগ্রগতি নেই। তাই নিজের মন্ত্রণালয়ের ব্যর্থতা আড়াল করতেই হয়তো তিনি স্রোতের বিপরীতে দাঁড়িয়েছেন। নুরুল মজিদ হুমায়ুন মাত্র নাম দেড়েক শিল্পমন্ত্রী। তাই তার মন্ত্রণালয়ের আগের ব্যর্তথার জন্য কেউ তাকে দায়ী করতো না। তবু তিনি যেভাবে বললেন, এ আগুনের সাথে কেমিক্যালের সম্পর্ক নেই। শুনে মনে হয়েছে ঠাকুর ঘরে কে রে, আমি কলা খাই না।

তবুও জন আবেগ, মিডিয়া, সবার মতের বিপরীতে গিয়ে এ ধরনের অবস্থান নিয়ে শিল্পমন্ত্রী সত্যি সাহসের পরিচয় দিয়েছেন। তাকে ধন্যবাদ ও অভিনন্দদন।

লেখক : হেড অব নিউজ, এটিএন নিউজ

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত