প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

ডাকসু নির্বাচনে অংশ নিচ্ছে ছাত্রদল

অনলাইন ডেস্ক : ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় ছা্ত্র সংসদ (ডাকসু) ও হল সংসদ নির্বাচনে যাচ্ছে ছাত্রদল। এই নির্বাচন নিয়ে বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানের সঙ্গে বৃহস্পতিবার (২১ ফেব্রুয়ারি)  ছাত্রদল নেতারা স্কাইপে কথা বলেন। এরপরই ছাত্রদল নেতারা ডাকসু নির্বাচনে অংশ নেয়ার চূড়ান্ত প্রস্তুতি নেয়া শুরু করেছে। সারাবাংলা

 

এদিকে, শুক্রবার বিকেলে ছাত্রদল নেতাদের সঙ্গে গুলশানে বিএনপির চেয়ারপার্সনের কার্যালয়ে  বিএনপি নেতাদের বৈঠক হয়েছে। বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন বিএনপির প্রচার সম্পাদক ও ডাকসু নির্বাচনে দায়িত্বপ্রাপ্ত নেতা শহীদ উদ্দীন চৌধুরী অ্যানী, কেন্দ্রীয় নেতা রকিবুল ইসলাম বাবুল, ছাত্রদলের কেন্দ্রীয় সভাপতি রাজীব আহসান, সাধারণ সম্পাদক আকরামুল হাসান, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রদলের সভাপতি আল মেহেদী তালুকদার, সাধারণ সম্পাদক আবুল বাশার সিদ্দিকীসহ ছাত্রদলের প্রায় ৫০জন নেতাকর্মী।

 

বৈঠক সূত্র জানায়, বৈঠকে ছাত্রদলের সিনিয়র নেতাদের ডাকসু সংক্রান্ত বিষয়ে বিভিন্ন কাজ ভাগ করে দেয়া হয়েছে।  এরমধ্য ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের যেসব হলে ছাত্রদলের কমিটি নেই, সেখানে কমিটি দেয়া, দলীয় মনোনয়ন ফরম বিতরণ করা উল্লেখযোগ্য।

 

 

 

এ বিষয়ে ছাত্রদলের একটি হল শাখার যুগ্ম আহ্বায়ক  বলেন, ছাত্রদল ডাকসু নির্বাচন নিয়ে ইতিবাচক থাকলও নির্বাচনে অংশ নেয়া নিয়ে দোলাচলে ছিলো।  কিন্তু তারেক রহমানের সঙ্গে কথা বলে ডাকসু নির্বাচনে অংশ নিচ্ছে ছাত্রদল।  ২৫ ফেব্রুয়ারির মধ্যেই দল প্যানেল চূড়ান্ত করবে।  এছাড়া ছাত্রদল যে সাত দফা দাবিতে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় উপাচার্যকে স্মারকলিপি দিয়েছিল সেই দাবিও অব্যাহত থাকবে।

 

ছাত্রদলের কেন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদক আকরামুল হাসান  বলেন, ‘আমরা ডাকসুর জন্য সময় বাড়ানোর দাবি করেছি।  কিন্তু প্রশাসন সময় বাড়াচ্ছে না।  আমরা বলেছি, ডাকসু নিয়ে ইতিবাচক থাকতে চাই।  সেজন্য আমাদের প্রস্তুতির একটা ব্যাপার আছে।  প্রস্তুতি নিয়ে রাখছি যেন যেকোনো সিদ্ধান্ত ফেস করতে পারি।’

 

ছাত্রদলের এই নেতা অভিযোগ করেন, ‘কর্তৃপক্ষ ৫ মার্চ সম্পূরক ভোটার তালিকা প্রকাশ করবে।  আর ২৫ ফেব্রুয়ারির মধ্যে ডাকসুর মনোনয়ন গ্রহণ করবে।  এতে আমাদের অনেক ভোটার প্রার্থী হওয়া থেকে বঞ্চিত হবে। ’ তিনি আরও বলেন, ‘ডাকসু নির্বাচন নিয়ে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন ভালোভাবে প্রস্তুত  নয়।  দ্রুত নির্বাচন করতে যেয়ে তারা একটি লেজে-গোবরে অবস্থা করে ফেলছে।  তাদের উচিত সময় বাড়ানো।’

 

আসন্ন ডাকসু নির্বাচন উপলক্ষে গত ৭ ফেব্রুয়ারি ডাকসু নির্বাচন ৩ মাস পেছানোসহ সাত দফা দাবিতে বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. আখতারুজ্জামানকে স্মারকলিপি দেয় ছাত্রদল।  নির্বাচন উপলক্ষে দীর্ঘ ৯ বছর পর  ১৩ ফেব্রয়ারি তারা মধুর ক্যান্টিনে আসে।  সেই থেকে ছাত্রদল মধুর ক্যান্টিনে নিয়মিত এসে ডাকসুর ব্যাপারে ইতিবাচক বক্তব্য রাখছে।

 

তবে, বিভিন্ন সূত্রে জানা গেছে, ছাত্রদলের একটি পক্ষ ডাকসু নির্বাচনে অংশ নেবে না।  কিন্তু বৃহস্পতিবার তারেক রহমানের সঙ্গে কথা বলে ডাকসু নির্বাচনে চূড়ান্তভাবে অংশ নেয় ।  পাশাপাশি সিদ্ধান্ত অনুযায়ী প্রস্তুতি নেয়াও শুরু করেছে।

 

১১ ফেব্রুয়ারি ডাকসু নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা করেন প্রধান রিটার্নিং কর্মকর্তা অধ্যাপক এস এম মাহফুজুর রহমান। তফসিল অনুযায়ী আগামী ২৫ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত ডাকসু নির্বাচনের মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করা যাবে।  ২৬ ফেব্রুয়ারি মনোনয়ন ফরম জমা দেয়ার শেষ তারিখ ও মনোনয়ন বাছাই। প্রার্থিতা প্রত্যাহারের শেষ তারিখ ২৮ ফেব্রুয়ারি। যাচাই-বাছাইয়ের পর ৩ মার্চ হলের নোটিশ বোর্ড ও ওয়েবসাইটে প্রাথমিক প্রার্থী তালিকা প্রকাশ করা হবে।  ভোটগ্রহণ হবে ১১ মার্চ (সোমবার) সকাল ৮টা থেকে দুপুর ২টা পর্যন্ত।

সর্বাধিক পঠিত