প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

‘বিশ্বকাপে পাকিস্তানের সাথে না খেললে আত্মসমর্পণ করা হবে’

স্পোর্টস ডেস্ক : ১৪ ফেব্রুয়ারি ভারতের কাশ্মীর পুলওয়ামায় জঙ্গি হামলায় ৪০ সেনা নিহত হয়। ভারতের দাবি এই হামলা পাকিস্তানই করেছে। যার কারনে আসন্ন ২০১৯ বিশ্বকাপে পাকিস্তানের সাথে ভারতের ম্যাচ বয়কটের দাবি জানায় ক্রিকেট মহল।

এতে চুপ থাকেননি ভারতী কংগ্রেস সাংসদ শশী থারু। তিনি মনে করেন, এমন পরিস্থিতি তো এই প্রথম নয়। এর আগেও একাধিকবার উত্তপ্ত পরিস্থিতির মাঝেই ভারত-পাকিস্তান ম্যাচ হয়েছে। এর আগেও থমথমে পরিবেশের মাঝে দাঁড়িয়েও মাঠে পাকিস্তানকে হারিয়েছে ভারত। তা হলে এবার নয় কেন! থারুর নিজের যুক্তিতে অনড়।

তিনি স্পষ্ট জানাচ্ছেন, আসন্ন বিশ্বকাপে পাকিস্তানের সঙ্গে ভারতের ম্যাচ খেলা উচিত।
পুলওয়ামায় সিআরপিএফ কনভয়ে আত্মঘাতী জঙ্গিহানার পর থেকেই গোটা দেশে উত্তপ্ত পরিস্থিতি। এমন অবস্থায় পাকিস্তানের সঙ্গে সবরকম সম্পর্ক বিচ্ছিন্ন করতে চাইছে ভারত। ফলে এই পরিস্থিতিতে দাঁড়িয়ে বিশ্বকাপে ভারত-পাকিস্তান ম্যাচের ভবিষ্যত অনিশ্চিত হয়ে পড়েছে।

তার যুক্তি, ‘এর আগে ১৯৯৯ সালে কার্গিল যুদ্ধের সময়ও আমরা পাকিস্থানের বিরুদ্ধে খেলেছি। সেই ম্যাচে আমরাই জিতেছিলাম। বিশ্বকাপে পাকিস্তানের বিরুদ্ধে না খেলা মানে দুই পয়েন্ট নষ্ট করব আমরা। তা ছাড়া এটা তো আত্মসমর্পণের মতো ব্যাপার। লড়াই না করেই হার মেনে নেওয়া হবে।’

১৯৯৯ সালে কার্গিল যুদ্ধের সময় ইংল্যান্ডে বিশ্বকাপ আয়োজিত হয়েছিল। সেই সময় মহম্মদ আজহারুদ্দিনের নেতৃত¦াধীন ভারতীয় দল বিশ্বকাপে পাকিস্তানকে হারিয়েছিল। ম্যাঞ্চেস্টারে সেদিন পাকিস্তানকে ৪৭ রানে হারিয়েছিল ভারত। সেই ম্যাচে আজহার ৫৯ রানের ইনিংস খেলেছিলেন। প্রথমে ব্যাট করে ভারতীয় দল করেছিল ২২৭/৬। জবাবে পাকিস্তানের ইনিংস গুটিয়ে যায় ১৮০ রানে। সেই ম্যাচে ভেঙ্কটেশ প্রসাদ পাঁচ উইকেট তুলেছিলেন।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত