প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

স্বপ্নের ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় গড়ার প্রতিশ্রুতি ছাত্রলীগের, বিরোধীরা চায় সুষ্ঠু পরিবেশ

জাবের হোসেন: দীর্ঘ ২৮ বছর পর ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদ (ডাকসু) নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে আগামী ১১ মার্চ। আদর্শিক দ্বন্ধ আর রাজনৈতিক ভিন্নমত থাকলেও শিক্ষার্থীদের অধিকারের প্রশ্নে একমত ছাত্র সংগঠনগুলো।

ডাকসু নির্বাচন সামনে রেখে ‘স্বপ্নের ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়’ গড়ার প্রতিশ্রুতি ছাত্রলীগের। সহাবস্থানের ভিত্তিতে ক্যাম্পাসে গণতান্ত্রিক পরিবেশ তৈরির তাগিদ বিরোধী সংগঠনগুলোর। আর সাধারণ শিক্ষার্থীদের চাওয়া ক্যাম্পাসে বিভিন্ন সমস্যা সমাধানে কার্যকর ভূমিকা রাখবে ডাকসু নেতৃত্ব। তবে আধুনিক লাইব্রেরি নির্মাণ, ক্যাম্পাসে গণপরিবহন নিয়ন্ত্রণ, গবেষণা খাতে বরাদ্দ বাড়ানো, খাবারের মান বৃদ্ধি ও আবাসন সমস্যা সমাধানসহ বেশ কিছু বিষয়ে একমত সবগুলো সংগঠন। সময় টিভি।

মধুর ক্যান্টিনের সামনে গেলেই এখন চোখে পড়বে ছাত্রলীগের বিভিন্ন প্রতিশ্রুতি সম্বলিত ব্যানার। মাদকমুক্ত ক্যাম্পাসের কথা বলছে সংগঠনটি। মুক্তিযুদ্ধ অধ্যয়ন ইন্সটিটিউট নির্মাণ, সান্ধ্যকালীন কোর্স নিয়ন্ত্রণসহ নানা পরিকল্পনা রয়েছে ছাত্রলীগের। কবি জসিম উদ্দিন হল শাখা ছাত্রলীগ সভাপতি সৈকত আরিফ হোসেন বলেন, ছাত্রলীগের কাছেই আমার প্রত্যাশা বেশি। আর ডাকসুতে নির্বাচিত হলে প্রশাসনিকভাবে তারা আরও বেশি সহায়তা পাবেন।

সরকারবিরোধী সংগঠনগুলোর মূল দাবি ক্যাম্পাসে গণতান্ত্রিক পরিবেশ। ছাত্রদল চায় সহাবস্থান, আর কোটা আন্দোলনকারীদের দাবি নিরাপদ ক্যাম্পাস। সংগঠনগুলোর ইশতেহারেও স্থান পাবে সন্ত্রাস, দখলদারিত্বমুক্ত ক্যাম্পাস গড়ার মতো বিষয়গুলো। ছাত্র ইউনিয়ন সভাপতি জি এম জিলানী শুভ বলেন, হলগুলোতে থাকা দখলদারিত্ব মুক্ত করবো এবং মেধার ভিত্তিতে সিট বণ্টন নিশ্চিত করতে চাইবো।
ডাকসু নির্বাচনকে সামনে রেখে সাধারণ শিক্ষার্থীদের কাছে টানার চেষ্টা করছে সবগুলো সংগঠন। তারা প্রতিশ্রুতির অভাব রাখছেন না।

অপরদিকে সাধারণ শিক্ষার্থীদের অভিযোগ, বিশ্ববিদ্যালয়ে সমস্যার অন্ত নেই। ডাকসু নির্বাচনকে ঘিরে সকল সমস্যার সমাধান হবে এই প্রত্যাশা তাদের। সাধারণ শিক্ষার্থীরা বলেন, বিভিন্ন হলে নানা ধরনের সমস্যা,খাবার দাবারের সমস্যা। রাস্তায় হাটলে ব্যাগ ধরে টান দেয়, এটাতো একটা বিশ্ববিদ্যালয়ে হতে পারে না। কেন এমনটা হবে? আমরা সুন্দর একটা ক্যাম্পাস চাই।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত