প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

বিশ্বকাপে পাকিস্তানকে বাদ দিতে আইসিসিকে অনুরোধ করবে ভারত

স্পোর্টস ডেস্ক: কাশ্মীর পুলওয়ামায় ভারতীয় সেনার উপর জঙ্গি হামলার পর বিশ্বকাপে ভারত-পাক ম্যাচ নিয়ে কঠিন সিদ্ধান্ত নিতে চলেছে বিসিসিআই। চলতি মাসের শেষে ২৭ ফেব্রুয়ারি দুবাইয়ে আইসিসি’র বৈঠকে বিশ্বকাপে ভারত-পাক ম্যাচ নিয়ে আলোচনা হওয়ার কথা রয়েছে। তার আগে ২২ ফেব্রুয়ারি বিশ্বকাপের পাকিস্তানের বিরুদ্ধে ম্যাচ খেলা নিয়ে কঠিন পদক্ষেপ নিতে চলেছে ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ড।

জানা গেছে পুলওয়ালা ঘটনার পর বিশ্বকাপে পাকিস্তানকে বয়কট করার অনুরোধ নিয়ে আইসিসি’র দ্বারস্থ হতে পারে ভারত। ২২ ফেব্রুয়ারি বোর্ডের বৈঠকে সেই আলোচনাই হতে পারে। বোর্ড সূত্রের খবর, পাকিস্তানকে বয়কট না করলে বিশ্বকাপ থেকে নাম তুলে নেওয়া কথা জানাতে পারে ভারত। শুক্রবার বিসিসিআইয়ের বৈঠকের পরই বিশ্বকাপে ভারত-পাক ম্যাচের চূড়ান্ত অবস্থান জানা যাবে। ৩০ মে থেকে ইংল্যান্ডের মাটিতে শুরু হচ্ছে এবাবের বিশ্বকাপ। ১৬ জুন ম্যাঞ্চেস্টারের ওল্ড ট্রাফোর্ডে পাকিস্তানের বিরুদ্ধে ম্যাচ খেলার কথা ভারতের।

জানা গিয়েছে বিশ্বকাপে পাকিস্তানের বিরুদ্ধে ম্যাচ খেলা নিয়ে, সিওএ প্রধান বিনোদ রাই বোর্ডের সিইও রাহুল জোহরিকে আইসিসি’র কাছে কড়া ভাষায় চিঠি লেখার প্রস্তাব জানিয়েছেন। সেই চিঠিতেই পুলওয়ামা ঘটনার উল্লেখ করে বিশ্বকাপ থেকে পাকিস্তানকে বয়কট করার অনুরোধ জানানো হতে পারে।

উল্লেখ্য এর আগে বোর্ডের অন্যতম প্রধান কর্তা রাজীব শুক্লা বিশ্বকাপে পাকিস্তানের বিরুদ্ধে ম্যাচ খেলা নিয়ে নিজের মতামত জানিয়েছেন। শুক্লার প্রতিক্রিয়া, সবকিছুর উর্ধ্বে দেশ। সেক্ষেত্রে সরকার সবুজ সংকেত দিলে তবেই এবার বিশ্বকাপে পাকিস্তানের বিরুদ্ধে দল নামাবে ভারত।

অন্যদিকে পুলওয়ালার ঘটনার পর কড়া ভাষায় পাকিস্তানের বিরুদ্ধে সোচ্চার হয়েছে ক্রিকেটমহল। ঠান্ডা ঘরে নয়, পাকিস্তানের সঙ্গে এবার আলোচনা হোক যুদ্ধক্ষেত্রে। পুলওয়ামা কান্ডে এমনটাই প্রতিক্রিয়া ভারতের দু’বারের বিশ্বকাপ জয়ী ক্রিকেটার গৌতম গম্ভীরের। ভারতের অন্যতম সফল অধিনায়ক সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়ও নৃশংস জঙ্গি হামলার ঘটনার তীব্র প্রতিবাদ জানিয়েছেন। ক্রিকেট সহ অন্য সব ক্রীড়াক্ষেত্রেই পাকিস্তানের সঙ্গে সম্পর্ক ছিন্ন করার দাবি জানিয়েছেন মহারাজ। বুধবার কেন্দ্রীয় আইনমন্ত্রীর গলাতেও ছিল একই সুর।

সর্বভারতীয় সংবাদমাধ্যমে তিনি জানান, ‘বিশ্বকাপ যেহেতু আন্তর্জাতিক টুর্নামেন্ট তাই আইসিসি এবং বিসিসিআই নিরাপত্তার বিষয়টি খতিয়ে দেখেই এবিষয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত গ্রহণ করবে বলে বিশ্বাস।’ সঙ্গে তিনি আরো বলেন, ‘নৃশংস জঙ্গি হামলার ঘটনায় ইমরান খানের তরফ থেকে কোনও শোকবার্তা পর্যন্ত এসে পৌঁছায়নি শহিদ জওয়ানদের জন্য। তাই আমার মতে ক্রিকেটীয় কোনওরকম সম্পর্ক স্থাপনেও না বলার সময় এসেছে।’

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত