প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

৩০ ক্রীড়া ফেডারেশনেই নেই নির্বাচিত প্রতিনিধি -
এনএসসি আছে, চোখ নেই

নিজস্ব প্রতিবেদক : জাতীয় ক্রীড়া পরিষদের (এনএসসি) এর অধীনে ক্রীড়া ফেডারেশন ও এসোসিয়েশনের সংখ্যা এখন ৫৩টি। এই ৫৩টি ক্রীড়া ফেডারেশন ও এসোসিয়েশনের মধ্যে ৩০টিতেই নেই নির্বাচিত কমিটি। যে ২৩ টিতে এখন আছে নির্বাচিত কমিটি তার মধ্যে ৫টির মেয়াদ শেষ। এর মধ্যে নয়টি আবার চলছে প্রতিষ্ঠাকালীন কমিটি দিয়ে। এসব ফেডারেশনের কোনো কার্যক্রমই চোখ খুলে দেখছে না জাতীয় ক্রীড়া পরিষদ। যে কারণে নির্বাচনের তাগিদও অনুভব করছে না ফেডারেশনগুলো।

ফেডারেশন ও এসোসিয়েশনগুলোর শীর্ষ কর্মকর্তাদের সঙ্গে যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী জাহিদ আহসান রাসেল মতবিনিময় সভায় বসেছিলেন ৮ই জানুয়ারি। ওই সভাতেই অনির্বাচিত ফেডারেশনগুলোতে নির্বাচন দেয়ার তাগিদ দিয়েছিলেন নতুন এই প্রতিমন্ত্রী। ইতিমধ্যে পেরিয়ে গেছে এক মাসের অধিক। এ সময়ের মধ্যে জাতীয় ক্রীড়া পরিষদ শেষ করেছে কেবল বাংলাদেশ টেবিল টেনিস ফেডারেশনের নিবার্চন।

যদিও এই নির্বাচনের প্রস্তুতি নেয়া হয়েছিল ওই সভার আগেই। নির্বাচনের উদ্যোগ নিয়েছে হকি ও শরীর গঠন ফেডারেশনও। হকির নির্বাচন নিয়ে ইতিমধ্যেই তোড়জোড় শুরু হয়েছে। বুধবার ফেডারেশন তাদের গঠনতন্ত্র ও হালনাগাদ কাউন্সিলর তালিকা জাতীয় ক্রীড়া পরিষদে জমা দিয়েছে। আর শরীর গঠন ফেডারেশনের নির্বাচনের জন্য কমিশন গঠন করেছে জাতীয় ক্রীড়া পরিষদ।
নির্বাচিত কমিটি দিয়ে চলছে ফুটবল, ক্রিকেট, সাঁতার, ব্যাডমিন্টন, বাস্কেটবল (মেয়াদোত্তীর্ণ), জিমন্যাস্টিকস, শুটিং, ভলিবল, টেবিল টেনিস, শরীর গঠন (মেয়াদোত্তীর্ণ), বক্সিং, দাবা, জুডো, রোইং, কুস্তি (মেয়াদোত্তীর্ণ), হ্যান্ডবল, রোলার স্কেটিং, কারাতে, তায়কোয়ান্ডো (মেয়াদ উত্তীর্ণ), খো খো (মেয়াদ উত্তীর্ণ), আরচারি, বাশআপ ও ন্যাশনাল প্যারালিম্পিক। অ্যাথলেটিকস, হকি ও কাবাডির মতো গুরুত্বপূর্ণ ফেডারেশনসহ অনির্বাচিত কমিটি দিয়ে চলছে সাইক্লিং, টেনিস, ভারোত্তোলন, বধির, স্কোয়াশ, বিলিয়ার্ড অ্যান্ড স্নুকার, মহিলা ক্রীড়া সংস্থা, ব্রিজ, গলফ, ক্যারম, মার্শাল আর্ট, ঘুড়ি, রাগবি, ফেন্সিং, উশু, বেসবল-সফটবল, কিক বক্সিং, আন্তর্জাতিক তায়কোয়ান্ডো, ব্যুত্থান, ইয়োগা, সার্ফিং, মাউন্টেনিয়ারিং, কান্ট্রি গেমস, সেপাক টাকরো, চুকবল, থ্রোবল ও জুজুৎসু। স্কোয়াশ, বিলিয়ার্ড অ্যান্ড ¯œুকার ও গলফসহ কিছু ফেডারেশন ও অ্যাসোসিয়েশন আছে তাদের নির্বাচন করার মতো সাধারণ পরিষদও নেই। তাই এসব ফেডারেশন ও অ্যাসোসিয়েশনের নির্বাচন কবে হবে কিংবা আদৌ হবে কি-না তা কেউ বলতে পারছে না।
মজার বিষয় হলো ৫৩টি ফেডারেশন ও অ্যাসোসিয়েশনের মধ্যে ৯টি জন্মলগ্ন থেকেই চলছে প্রতিষ্ঠাকালীন কমিটি দিয়ে। বছরের পর বছর পার হলেও এ এসোসিয়েশনগুলো জাতীয় ক্রীড়া পরিষদকে কমিটি গঠনের প্রস্তাব দেয়নি। অনুমোদন নিয়েই খালাস তারা। এখন শুধু সরকারের অনুদানই নিয়ে যাচ্ছে, কিন্তু সরকারের নিয়ম মানছে না। বাংলাদেশ মার্শাল আর্ট কনফেডারেশন জাতীয় ক্রীড়া পরিষদের অনুমোদন পেয়েছে ১৯৯৭ সালের ১০ই মার্চ। জাতীয় ক্রীড়া পরিষদ থেকে পাওয়া তথ্য অনুযায়ী এ ফেডারেশনটি দীর্ঘ ২২ বছর ধরে চলছে প্রতিষ্ঠাকালীন কমিটি দিয়ে। কমিটি গঠনের জন্য জাতীয় ক্রীড়া পরিষদকে কখনো প্রস্তাবও দেয়নি এ ফেডারেশন। বাংলাদেশ ঘুড়ি এসোসিয়েশনের জন্ম ২০০৬ সালের ২৩শে অক্টোবর। ১৩ বছরেও এ অ্যাসোসিয়েশন থেকে কমিটি গঠন করে দেয়ার জন্য কোনো প্রস্তাব পায়নি জাতীয় ক্রীড়া পরিষদ।

২০০৯ সালের ৩০শে জুন জাতীয় ক্রীড়া পরিষদের অনুমোদন পেয়েছে বেসবল-সফটবল এসোসিয়েশন। ১০ বছর ধরে এ এসোসিয়েশনও চলছে প্রতিষ্ঠাকালীন কমিটি দিয়ে। ২০১০ সালের ২৩শে ডিসেম্বর অনুমোদন পাওয়ার পর থেকে নিজেদের করা কমিটি দিয়ে চলছে বাংলাদেশ কিক বক্সিং এসোসিয়েশন। ২০১২ সালের ৬ই সেপ্টেম্বর থেকে একইভাবে চলছে বাংলাদেশ আন্তর্জাতিক তায়কোয়ান্ডো এসোসিয়েশন। তবে এ সংস্থাটি ইতিমধ্যে কমিটি গঠনের প্রস্তাব দিয়েছে জাতীয় ক্রীড়া পরিষদকে। বাংলাদেশ ব্রুত্থান অ্যাসোসিয়েশনের জন্ম ২০১৩ সালের ২৬শে ফেব্রুয়ারি। চলছে সেই প্রতিষ্ঠাকালীন কমিটি দিয়েই।

জাতীয় ক্রীড়া পরিষদকে এ এসোসিয়েশনটিও কমিটি গঠনের প্রস্তাব দেয়নি। গত বছর ১৮ই অক্টোবর যে চারটি এসোসিয়েশনকে অনুমোদন দিয়েছে জাতীয় ক্রীড়া পরিষদ সেই থ্রোবল, সেপাক টাকরো ও জুজুৎসু চলছে নিজেদের জমা দেয়া কমিটি দিয়েই। এর মধ্যে বাংলাদেশ থ্রোবল অ্যাসোসিয়েশন কমিটি গঠন করে দিতে প্রস্তাব দিয়েছে জাতীয় ক্রীড়া পরিষদকে।

ফেডারেশন ও এসোসিয়েশনগুলোর নির্বাচন নিয়ে জাতীয় ক্রীড়া পরিষদের সচিব মো. মাসুদ করিম বলেন, মন্ত্রী মহোদয়ের নির্দেশক্রমে আমরা নির্বাচনী প্রক্রিয়া শুরু করেছি। ইতিমধ্যে টেবিল টেনিস ফেডারেশনের নির্বাচন শেষ হয়েছে। হকির নির্বাচনের তোড়জোড় চলছে। গঠন করা হয়েছে শরীর গঠন ফেডারেশনের নির্বাচনের জন্য কমিশন। আমরা পর্যায়ক্রমে নির্বাচন প্রক্রিয়া শেষ করবো।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত