প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

চকবাজারে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় ‘ভাই খুঁজছেন বোনকে, বাবা ছেলেকে’, তুহিন কেঁদে বললেন ‘ ‘আব্বা, তুহিন কইতেছি, এনামুল পুইড়া মইরা গেছে’

দেবদুলাল মুন্না: রাজধানীর পুরান ঢাকার চকবাজার এলাকায় রাজ্জাক ভবনে গত বুধবার অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় নিহত মানুষের সংখ্যা বেড়েই চলছে। ঢাকা মেডিকেল কলেজের মর্গে লাশ আসছে। হাসপাতালে বাড়ছে মানুষের ভিড়। ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে বৃহস্পতিবার সকালে স্বজনের হাহাক রে ভারি হয়ে উঠে চারপাশ। ভাই খুঁজছেন বোনকে। তুহিন নামের এক তরুণ খুঁজছেন তার ভাতিজাকে।

চকবাজারের বাসিন্দা মো. মাহির হোসেন। তাকে খুঁজে পাচ্ছে না পরিবার। ভাইকে খুঁজতে ঢাকা মেডিকেলে পাগলের মতো ঘুরে বেড়াচ্ছেন বোন নূর আনহা। ঢাকা মেডিকেলে ছেলের খোঁজে এসেছেন আমজাদ হোসেন। তিনি পুড়ে যাওয়া স্টেশনারি দোকান ওয়াসিফ এন্টারপ্রাইজের মালিক। তুহিন নামের একজন কেঁদে মোবাইল ফোনে বলছেন, ‘আব্বা, তুহিন কইতেছি, এনামুল পুইড়া মইরা গেছে। আমি খুঁইজ্যা খুঁইজ্যা ঢাকা মেডিকেল মেডিকেল আইসা তাঁকে খুঁইজ্যা পাইছি।’এনামুলের পুরা নাম কাজী এনামুল হক অভি। তিনি ঢাকা সিটি কলেজ থেকে বিবিএ পড়েছেন। রূপালী ইনস্যুরেন্সে ইউনিট ম্যানেজার হিসেবে কাজ শুরু করেছিলেন। এনামুলের বাড়ি পটুয়াখালীর মির্জাগঞ্জ। তিনি ওই এলাকায় থাকতেন। রাতে দাঁতের চিকিৎসা করাতে গিয়েছিলেন। তুহিন, কাজী আর নিহত এনামুল সমবয়সী। সম্পর্কে তুহিনের ভাতিজা এনামুল। ডুকরে ডুকরে কাঁদছেন সবাই।

রাজধানীর চকবাজারের চুড়িহাট্টা শাহী মসজিদের পেছনের ভবনগুলোতে ভয়াবহ আগুন লাগায় ৭৮টি মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। মরদেহগুলো ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল মর্গে নেয়া হয়েছে। কান্নায় ভারি হয়ে উঠেছে ঢামেক। নিখোঁজদের সন্ধানে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালসহ আশপাশের বিভিন্ন হাসপাতালে ভিড় করছেন শত শত স্বজনেরা।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত