প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

ভারত থেকে ওরশ স্পেশাল ট্রেন রাজবাড়ীতে ফিরেছে

ইউসুফ মিয়া: ভারতের পশ্চিমবঙ্গের মেদিনীপুর জোড়া মসজিদে ১১৮তম পবিত্র ওরশ শরীফে যোগদান শেষে ওরশ স্পেশাল ট্রেনটি সুষ্ঠুভাবে গত মঙ্গলবার রাত ৯টা ৫৫ মিনিটে রাজবাড়ীতে ফিরে এসেছে ।

গত ১৫ই ফেব্রুয়ারি রাত ১০ টায় ট্রেনটি মেদিনীপুরের উদ্দেশ্যে রাজবাড়ী রেলওয়ে স্টেশন ছেড়ে যায়। আঞ্জুমান-ই-কাদেরীয়া, রাজবাড়ীর ব্যবস্থাপনায় বাংলাদেশ রেলওয়ের ২৪টি বগি সম্বলিত ওরশ স্পেশাল ট্রেনটিতে ১২৫৪ জন পুরুষ, ১০০৬ জন নারী ও ৭৬ শিশু সর্বমোট ২ হাজার ৩৩৬ জন যাত্রী ছিল। এর নেতৃত্বে ছিলেন আঞ্জুমান-ই-কাদেরীয়া, রাজবাড়ীর সভাপতি কাজী ইরাদত আলী। এ বছর মেদিনীপুর ওরশ শরীফে যোগদানকারী ট্রেন যাত্রীদের ভিসা ফি, ভ্রমণ কর, ভাড়া ও অন্যান্য খরচসহ মোট ৩ হাজার ৩৫০ টাকা করে ব্যয় হয়েছে।

আঞ্জুমান-ই-কাদেরীয়া, রাজবাড়ী অফিস সূত্রে জানা গেছে, গত ১৭ই ফেব্রুয়ারি দিবাগত রাতে মেদিনীপুরের জোড়া মসজিদ মির্জা মহল্লায় হযরত আব্দুল কাদের জিলানী (আঃ) পাক এর ২০তম বংশধর আলী আব্দুল কাদের সামছুল কাদের হযরত সৈয়দ শাহ মোরশেদ আলী আল কাদেরী আল হাসানী ওয়াল হুসাইনী আল বাগদাদী আল মেদিনীপুরী (আঃ)’র ১১৮তম বার্ষিক ওরশ শরীফ উদযাপিত হয়। ওরশ শরীফ পরিচালনা করেন রাসুল (সাঃ) পাক এর ৩৬তম ও গাউস-উল-আযম বড় পীর আব্দুল কাদের জিলানী (আঃ) পাক এর ২৩তম বংশধর হযরত সৈয়দ শাহ্ রশিদ আলী আল কাদেরী আল হাসানী ওয়াল হুসাইনী আল বাগদাদী আল মেদিনীপুরী মাদ্দাজিলুহুল আলী।

উল্লেখ্য, বাংলাদেশ ও ভারত সরকার যৌথভাবে ১৯০২ সাল থেকে এই স্পেশাল ট্রেনটি চলাচলের ব্যবস্থা করে আসছে। এছাড়া মেদিনীপুরের ওরশ শরীফে যোগদানের জন্য রাজবাড়ীসহ বিভিন্ন স্থান থেকে বিপুল সংখ্যক মানুষ সড়ক পথেও ভারতে গিয়েছিল।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ