প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

রংপুরে স্বাস্থ্য সেবা থেকে বঞ্চিত ১৬ গ্রামের মানুষ

রংপুরে স্বাস্থ্য সেবা থেকে বঞ্চিত ১৬ গ্রামের মানুষ

মদিনাতুল জান্নাত ও জাহিদ চৌধুরী: রংপুরের পীরগাছা উপজেলার কল্যাণী ইউনিয়ন পরিষদের এ্যাম্বুলেন্সটি দীর্ঘদিন ধরে ইউপি চেয়ারম্যানের অবহেলা ও উদাসীনতায় ইউপি চত্বরেই অকেজো হয়ে পরে আছে। এ্যাম্বুলেন্সটি মেরামতের কোনও উদ্যোগ না নেওয়ায় ওই এলাকার মানুষজন জরুরী স্বাস্থ্য সেবা থেকে বঞ্চিত হচ্ছে।

জানা যায়, রংপুরের পীরগাছা উপজেলার মাহিগঞ্জ মেট্রোপলিটন থানার কল্যাণী ইউনিয়ন পরিষদের আয়তন ৭ দশমিক ৭৯ বর্গমাইল। এই ইউনিয়নের ১৬ টি গ্রামে প্রায় ২৭ হাজার ৪৫০ জন লোক বসবাস করে। বসবাসকৃত ওইসব মানুষজনের জন্য রয়েছে হাসপাতালে রোগীদের নিয়ে আসা যাওয়ার জন্য একটি মাত্র লক্কর ঝক্কর এ্যাম্বুলেন্স। যার নং-চট্রো মেট্রো-চ- ৫১-০৩৭২। কিন্তু লক্কর ঝক্কর এ্যাম্বুলেন্সটিও ৩ মাসের অধিক সময় ধরে অকেজো হয়ে পরে আছে ইউপি চত্বরেই। এতে করে একদিকে স্বাস্থ্য সেবা থেকে বঞ্চিত হচ্ছে ইউনিয়ন বাসী। অন্যদিকে সরকারী অর্থে ক্রয় করা এ্যাম্বুলেন্সটিও ইউপি চেয়ারম্যানের অযত্নে অবহেলায় ক্ষতিগ্রস্থ হচ্ছে।

নাম না প্রকাশ করার শর্তে ওই ইউপির সচেতন মহল জানান, কল্যাণী ইউপি চেয়ারম্যান মো. নুর আলম প্রায় দুই বছর আগে চট্টগ্রাম থেকে অকশনের বাজেয়াপ্ত একটি লক্কর ঝক্কর এ্যাম্বুলেন্স ক্রয় করে নিয়ে আসেন তিনি। এরপর, ওই এ্যাম্বুলেন্সটির ক্রয় মূল্য ধরা হয় ৭ লাখ ৪০ হাজার টাকা। তারপর, অসুস্থ্য মানুষের জনের মাঝে দ্রুত স্বাস্থ্য সেবা পৌঁছে দিতে ওই লক্কর ঝক্কর এ্যাম্বুলেন্সটি ব্যাবহার করা হয়।

এ্যম্বুলেন্সটির ক্রয়মূল্য ও টেন্ডারের মাধ্যমে ক্রয় করা হয়েছে কী না এ তথ্য জানতে চাইলে ইউপি সচিব মো. মতিনুজ্জামান বিষয়টি এরিয়ে যান।

তবে, এ বিষয়ে কল্যাণী ইউপি চেয়ারম্যান মো. নুর আলম জানান, ইউপিবাসী স্বাস্থ্য সেবায় এ্যাম্বুলেন্সটি ব্যবহার করলেও ভারা না দেওয়ায় মনের ক্ষোভে এ্যাম্বুলেন্সটি ব্যবহার করা হচ্ছে না।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত