প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি ৮ শতাংশে নিতে বন্ড মার্কেট থেকে প্রায় ৯ লাখ কোটি টাকার পুঁজি সংগ্রহের উদ্যোগ

রাশিদ রিয়াজ : কর্পোরেট খাতকে প্রাধান্য দিয়ে বন্ড মার্কেটকে চাঙ্গা করতে একটি ত্রিপক্ষীয় কমিটি গঠন করা হয়েছে। অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধিতে তীব্র গতি সৃষ্টি করতে ২০২১ সালের মধ্যে প্রবৃদ্ধি ৮ শতাংশে উন্নীত করতে এ কমিটি কাজ শুরু করেছে। এদের লক্ষ্য বন্ড মার্কেট থেকে ৮.৭৮ টিলিয়ন টাকার পুঁজি সংগ্রহ করা। মধ্যআয়ের দেশের কাতারে যেতে এধরনের তহবিল সম্পদ যোগানে যে ঘাটতি রয়েছে তা পূরণে কাজে লাগানো হবে। বাংলাদেশ ব্যাংক বলছে ২০২০-২১ অর্থবছরে জিডিপি’ আকার ৩২.৭৮ ট্রিলিয়ন টাকা হলেও একই সময়ে সম্পদের ঘাটতি দাঁড়াবে ৮.৭৮ ট্রিলিয়ন টাকা। ফিনান্সিয়াল এক্সপ্রেস

কেন্দ্রীয় ব্যাংক বিনিয়োগ, ব্যাংকিং খাত ও তহবিল যোগানের যে উদ্যোগ নিচ্ছে তার প্রধান টার্গেট হিসেবে নেয়া হয়েছে পুঁজিবাজারকে। সম্পদ যোগানে ব্যাংককিং খাত ইতিমধ্যে প্রাধান্য বজায় রেখে এক্ষেত্রে ৬২ শতাংশ অবদান রেখেছে। পুঁজিবাজারের অবদান রয়েছে সাড়ে ১৬ শতাংশ। এতথ্য দিয়ে বাংলাদেশ ব্যাংকের এক জরিপে বলা হচ্ছে, বৃহৎ আকারের করপোরেট বন্ড এখনো অনুপস্থিত। শুধুমাত্র ব্যাংকিং খাত থেকে করপোরেট ঋণের যোগান দিতে যেয়ে বাজারে এক ধরনের বিশৃঙ্খলার সৃষ্টি হচ্ছে। অন্যদিকে এধরনের পরিস্থিতি পুুঁজি বাজার থেকে কর্পোরেট খাতে বিনিয়োগের চাহিদাও বৃদ্ধি পায়। তবে বাংলাদেশ ব্যাংককে ঋণ প্রদানের ক্ষেত্রে শৃঙ্খলা নির্ধারণে আরো কঠোর হওয়ার পরামর্শ দেয়া হয়েছে।

বাংলাদেশ ব্যাংকের ঋণ ব্যবস্থাপনা বিভাগের জেনারেল ম্যানেজার মোহাম্মদ খুরশিদ আলম বলেছেন, বন্ড মার্কেটের সার্বিক পরিস্থিতি বিবেচনা ও যাচাই করে এধরনের লক্ষ্য অর্জনে কি কি ধরনের পদক্ষেপ নিতে হবে তা নিয়ে কাজ শুরু হয়েছে। উদ্যোক্তাদের সাহসী করে তুলতে কৌশল নির্ধারণে পদক্ষেপ নেয়া হচ্ছে। যাতে তারা বাণিজ্যি ব্যাংকের পাশাপাশি কর্পোরেট বন্ড মার্কেট থেকে পুঁজি সংগ্রহে তৎপর হয়ে উঠতে পারে। কারণ অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি ৮ শতাংশে উন্নীত করতে এর কোনো বিকল্প নেই।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত