প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

২০২২ সালে যুক্তরাজ্যে গাড়ি তৈরির কারখানা বন্ধ করবে হোন্ডা

আনন্দ মোস্তফা: জাপানি প্রস্তুতকারক হোন্ডা ২০২২ সালে যুক্তরাজ্যে তাদের একমাত্র কারখানা বন্ধ করার ঘোষণা দিতে যাচ্ছে। এর ফলে দেশটি ৩৫০০ কর্মসংস্থান হারাতে যাচ্ছে বলে রয়টার্সকে এক আইনপ্রণেতা জানান। হোন্ডার এই পরিকল্পনা ব্রেক্সিট ইস্যুতে ধুঁকতে থাকা ব্রিটিশ গাড়ি শিল্পের ওপর আরেকটি বড় আঘাত। রয়টার্স
দক্ষিণ ইংল্যান্ডের সুইনডোন শহরের কারখানাটি বন্ধের ঘোষণা দিলে এটি হবে ২০২২ সালে হোন্ডার বন্ধ করতে যাওয়া দ্বিতীয় কারখানা। প্রায় বছরখানেক আগে হোন্ডা ২০২২ সালে তাদের জাপানের একটি কারখানা বন্ধের ঘোষণা দিয়েছিলো। উত্পাদন কমিয়ে এনে গাড়ির নতুন প্রযুক্তির উদ্ভাবনে মনোযোগ দিতেই এই সিদ্ধান্ত নেয় হোন্ডা।
সুইনডোনের কারখানায় ১ লক্ষ ৬০ হাজার গাড়ি নির্মাণ করেছে হোন্ডা। এখানেই হোন্ডার বহুল জনপ্রিয় সিভিক মডেলের হ্যাচব্যাক সংস্করণের গাড়ি তৈরী করা হয়। যুক্তরাষ্ট্রের মোট উত্পাদিত ১৫ লক্ষ ২০ হাজার গাড়ির ১০ শতাংশের কিছু বেশি উত্পাদন করেছে হোন্ডা।
সাম্প্রতিক বছরগুলোতে ইউরোপে বেশ প্রতিকূলতার মধ্যে দিয়ে যাচ্ছে হোন্ডা।ডিজেল চালিত গাড়ির চাহিদা কমে আসা, কার্বন নিঃস্বরণ সংক্রান্ত কঠোর আইন এবং যুক্তরাজ্যের ইউরোপীয় ইউনিয়ন থেকে বেরিয়ে যাওয়া সংক্রান্ত অনিশ্চতায় কঠিন সময় পাড় করছে হোন্ডা।
সুইনডোনের কনসারভেটিভ আইনপ্রণেতা জাস্টিন টমলিনসন জানান, বাণিজ্যমন্ত্রী ও হোন্ডার প্রতিনিধি হোন্ডার এই পরিকল্পনা তাকে জানিয়েছেন। টমলিনসন রয়টার্সকে বলেন, ‘হোন্ডা আগামীকাল (আজ) আনুষ্ঠানিকভাবে ঘোষণা করবে। তাদের ব্যবসা গুটিয়ে নেয়ার কারণ ব্রেক্সিট নয়। এটি বিশ্ব বাজারের প্রতিফলন। তারা জাপানেও উত্পাদন কমিয়ে আনছে।’

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ