প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

চলতি বছরেই বরিশালে শতভাগ বিদ্যুতায়ন

শাহীন চৌধুরী: সরকারের শতভাগ বিদ্যুতায়ন কর্মসূচিতে এগিয়ে আছে বরিশাল বিভাগ। বিশেষ করে বরিশাল জেলা আরও বেশী অগ্রগামী। চলতি বছরেই বরিশালে শতভাগ বিদ্যুতায়নের সম্ভাবনা রয়েছে। আর এই কমসূচি বাস্তবায়নে নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছে বাংলাদেশ পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি, বরিশাল বিভাগ। খবর সংশ্লিষ্ট সূত্রের।

সূত্র জানায়, পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি, বরিশাল-১ এবং ২ -এর ব্যবস্থাপনা ব্যবস্থাপনা কর্তৃপক্ষ জানায়, ইতোমধ্যে জেলার বাবুগঞ্জ, আগৈলঝাড়া, বানারীপাড়া, গৌরনদী, উজিরপুর ও সদর উপজেলার শতভাগ বিদ্যুতায়নের কাজ সম্পন্ন হয়েছে। মূলাদী উপজেলার শতভাগ বিদ্যুতায়নে অবশিষ্ট কাজ রয়েছে ৩’শ ৩৬ কিলোমিটার। এই উপজেলার শতভাগ বিদ্যুতায়নে সময় নির্ধারণ করা হয়েছে জুন ২০১৯ সাল পর্যন্ত। বাকেরগঞ্জ উপজেলার শতভাগ বিদ্যুতায়নে অবশিষ্ট কাজ রয়েছে ৪’শ ৮৫ কিলোমিটার। এখানকার শতভাগ বিদ্যুতায়নে সময় নির্ধারণ করা হয়েছে সেপ্টেম্বর ২০১৯ সাল। হিজলা উপজেলার শতভাগ বিদ্যুতায়নে অবশিষ্ট কাজ রয়েছে ৩’শ ৮৮ কিলোমিটার। এই উপজেলার শতভাগ বিদ্যুতায়নে সময় নির্ধারণ করা হয়েছে ডিসেম্বর ২০১৯ সাল। মেহেন্দিগঞ্জ উপজেলার শতভাগ বিদ্যুতায়নে অবশিষ্ট কাজ রয়েছে ৬’শ ২৪ কিলোমিটার। এখানকার শতভাগ বিদ্যুতায়নে সময় নির্ধারণ করা হয়েছে ডিসেম্বর ২০১৯ সাল পর্যন্ত।

স ত্র আরো জানায়, বর্তমান প্রধানমন্ত্রীর উদ্যোগ “ঘরে ঘরে বিদ্যুৎ” প্রতিশ্রæতি বাস্তবায়নের লক্ষ্যে পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি বিদ্যুৎকর্মীদের সমন্বয়ে প্রায় ১০টি টিম গঠন করেছে। বিগত এক মাস যাবৎ গঠনকৃত টিমের সদস্যরা সচেতনতামূলক প্রচার-প্রচারণা চালাচ্ছে। পাশাপাশি কোন গ্রাহক বিদ্যুৎ সংযোগের জন্য আবেদনের সাথে সর্বমোট ৫’শ ৬৫ টাকা জমা দেয়ার সাথে সাথে বিদ্যুৎ সংযোগ পৌছে দিচ্ছে এসব টিমের বিদ্যুৎকর্মীরা।

এ প্রসঙ্গে পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি, বরিশাল ১-এর জেনারেল ম্যানেজার প্রকৌশলী মো: শাহ্জাহান তালুকদার বলেন, গ্রামীণ জনগোষ্ঠীর জীবনমান উন্নয়নের পাশাপাশি গ্রামীণ অর্থনীতিকে এগিয়ে নিতে বিদ্যুৎ সুবিধা বৃদ্ধি ও সরবরাহ অপরিহার্য এবং এর কোন বিকল্প নেই।

পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি, বরিশাল ২-এর জেনারেল ম্যানেজার প্রকৌশলী মোঃ একরামুল হক এ বিষয়ে বলেন, গ্রামীণ জনগোষ্ঠীকে আরো অধিক বিদ্যুৎ সুবিধা দিতে, বিদ্যুৎ উৎপাদন ও সরবরাহ কর্তৃপক্ষ বিদ্যুতের উৎপাদন, বিদ্যুৎ লাইন সম্প্রসারণ ও সিস্টেম লস কমিয়ে এনেছে। প্রতিশ্রুতি বাস্তবায়নের লক্ষ্যে বাকি ৪টি উপজেলাকে চলতি বছর জুন থেকে ডিসেম্বরের মধ্যে শতভাগ বিদ্যুতায়ন কর্মস‚চির আওতায় আনার লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয়েছে।

প্রসঙ্গত, সরকার চলতি বছরের মধ্যেই সারা দেশে বিদ্যুতায়ন কর্মসূচি নিয়ে এগিয়ে যাচ্ছে। অবশ্য কিছু পার্ববত্য এলাকা, নদীর তীরবর্তী অঞ্চল ও প্রত্যন্ত চরাঞ্চল এই কর্মসূচির আওতায় আনা কঠিন। আর এজন বিকল্প হিসেবে সৌরবিদ্যুৎ কর্মসূচি নিয়ে এগিয়ে যাওয়া হচ্ছে। কর্তৃপক্ষ আশা করছেন, চলতি বছর ডিসেম্বরে না হলে আগামী ২০২০ সালের জুনের মধ্যে সারা দেশই বিদ্যুদের আওতায় আসবে।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত