প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

জাতীয় নিরাপত্তা আইনের অপব্যবহার করছে বিজেপি ও কংগ্রেসঃ মায়াবতী

নূর মাজিদ : মধ্য প্রদেশে কংগ্রেস এবং উত্তর প্রদেশে বিজেপি শাসিত রাজ্য সরকার পৃথক দুটি ঘটনায় জাতীয় নিরাপত্তা আইনের অপব্যবহার করেছে। গতকাল বৃহ¯পতিবার ভারতের বহুজন সমাজপার্টির প্রধাননেত্রী মায়াবতী এক টুইট বার্তায় এমন অভিযোগ করে, উভয়দলের প্রতি ক্ষুদ্ধ প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করেন। এসময় তিনি এই আইনি অপব্যবহারকে রাষ্ট্র পরিচালিত সন্ত্রাসের সঙ্গেও তুলনা করেন। ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস, ইন্ডিয়া টুডে

মধ্য প্রদেশের নতুন রাজ্য সরকার কথিত গো হত্যার অভিযোগে তিন ব্যক্তিকে জাতীয় নিরাপত্তা আইনের আওতায় গ্রেফতার করে। রাজ্যের খান্ডওয়া শহরে এই কথিত গো হত্যার ঘটনা ঘটে। অন্যদিকে, উত্তর প্রদেশের বিজেপি সরকার আলীগড় মুসলিম বিশ্ববিদ্যালয়ের বিরুদ্ধে বিদ্বেষমূলক প্রচারণার মাধ্যমে রাষ্ট্রীয় নিরাপত্তা বিঘিœত করাসহ সন্ত্রাসবাদকে উস্কে দেয়ার মিথ্যে অভিযোগ আনে। পরবর্তীতে জাতীয় নিরাপত্তা আইনের আওতায় ওই বিশ্ববিদ্যালয়ের ১৪ ছাত্রকে গ্রেফতার করা হয়। এই সকল ঘটনাকে রাষ্ট্রীয় সন্ত্রাসের উৎকৃষ্ট উদাহরণ বলে প্রতিবাদ করেন মায়াবতী।

টুইট বার্তায় তিনি বলেন, কংগ্রেস এবং বিজেপি উভয়দলই গো হত্যার মিথ্যে অভিযোগে মুসলমানদের বিরুদ্ধে রাষ্ট্রীয় আইনের অপব্যবহার করেছে। এখন আলীগড় বিশ্ববিদ্যালয়ের ১৪ শিক্ষার্থীকেও এনএসপি আইনের আওতায় গ্রেফতার করা হয়েছে। উভয় ঘটনায় রাষ্ট্রীয় সন্ত্রাসের উদাহরণ এবং নিন্দনীয়। বিজেপি এবং কংগ্রেসের মাঝে আসলেই কোন পার্থক্য আছে কিনা এখন সেই জনগণের সিদ্ধান্ত নেয়া উচিৎ?

এদিকে মায়াবতী এমন সময় এই সমালোচনা করলেন যখন কংগ্রেস সভাপতি রাহুল গান্ধী আসন্ন লোকসভা নির্বাচনে বিজেপির বিরুদ্ধে জোটগঠনের প্রক্রিয়া জোরদার করেছেন। এখন ভারতের প্রভাবশালী দলগুলোর সঙ্গে রাজনৈতিক মিত্রতা মজবুত করার চেষ্টা করছে রাহুলের কংগ্রেস। এই তালিকায় সমাজবাদি পার্টি ও মায়াবতীও রয়েছেন।

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত