প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

বেজিংয়ে ন্যুচিন
ডেডলাইনকে কেন্দ্র করে উচ্চ পর্যায়ে চীন-যুক্তরাষ্ট্র বাণিজ্য আলোচনা

নূর মাজিদ : বেইজিং সফররত মার্কিন বাণিজ্যমন্ত্রী স্টিফেন ন্যুচিন গতকাল বৃহ¯পতিবার চীনের সঙ্গে নতুন করে বাণিজ্য আলোচনা নিয়ে আশাবাদ ব্যক্ত করেছেন। এসময় তিনি বলেন, ‘বাণিজ্য সংঘাত নিরসনের আলোচনার দিকেই এখন আমরা সবাই তাকিয়ে রয়েছি।’ আগামী পহেলা মার্চ পর্যন্ত বাণিজ্যযুদ্ধ বিরতির যে সময়সীমা নির্ধারিত হয়েছে, তা নিকটবর্তী হওয়ার সঙ্গে সঙ্গে উভয়দেশের শীর্ষ কর্মকর্তাদের মাঝে বাণিজ্য আলোচনা শুরু হয়েছে। দ্বিতীয় দফার বাণিজ্য আলোচনা যুক্তরাষ্ট্রে শুরু হবে। তার আগেই ন্যুচিন চীন সফর করছেন। রয়টার্স, সিএনবিসি

চীনা কর্মকর্তাদের সঙ্গে তিনদিনব্যাপী বৈঠকে অংশ নেবেন স্টিফেন ন্যুচিন। ডেপুটি পর্যায়ের এই বৈঠকে মূল বাণিজ্য আলোচনা পূর্ববর্তী বেশকিছু কৌশলগত ইস্যুর মীমাংসা করা হবে। এই সফরে তার সফরসঙ্গী হিসেবে এসেছেন যুক্তরাষ্ট্রের বাণিজ্য প্রতিনিধি রবার্ট লাইথিজার। তারা উভয়েই চীনা উপ-প্রধানমন্ত্রী লিউ হে’র সঙ্গে দিয়াওতাই স্টেট গেস্ট হাউজে বৈঠকে অংশ নেবেন। লিউ হে দেশটির প্রেসিডেন্ট শি জিনপিংয়ের প্রধান অর্থনৈতিক উপদেষ্টা।

এদিকে পহেলা মার্চের মধ্যে বাণিজ্য আলোচনায় সমাধান না হলে, প্রায় ২০ হাজার কোটি ডলারের চীনা রপ্তানি পন্যে নতুন করে ২৫ শতাংশ শুল্কারোপ করবে যুক্তরাষ্ট্র। এতে চীনের কৃষি থেকে ইলেক্ট্রনিঙ্খাত সকল প্রকার আমদানিকে অন্তর্ভুক্ত করা হবে। তবে প্রেসিডেন্ট ট্রা¤েপর নিজের উপদেষ্টারাই এখন বলছেন, পহেলা মার্চের ডেডলাইন দেয়া আসলেই বেশি কঠিন হয়ে গেছে। এর ফলে বাণিজ্য আলোচকেরাও যথেষ্ট সময় পাচ্ছেন না।

এই প্রেক্ষিতে ট্রা¤প ইতোপূর্বে বলেন, নির্ধারিত সময় বৃদ্ধি করার সম্ভাবনা রয়েছে তবে এমনটি করার ইচ্ছে নেই তার। তবে ট্রা¤েপর ঘনিষ্ঠ সূত্রের বরাত দিয়ে দেশটির প্রভাবশালী অর্থনৈতিক গণমাধ্যম ব্লুমবার্গ জানায়, প্রেসিডেন্ট নির্ধারিত ডেডলাইন আরো ৬০ দিন পিছিয়ে দেয়ার কথা ভাবছেন।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত