প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

ডাকসু নির্বাচন সুষ্ঠু করার জন্য ছাত্র সংগঠনগুলোকে সংলাপে বসে তার ব্যবস্থা করতে হবে, বললেন ড. মীজানুর রহমান

খায়রুল আলম : জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. মীজানুর রহমান বলেছেন, যেহেতু ডাকসু নির্বাচনটি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে হচ্ছে, সেহেতু সেখানে থেকে যে রিটার্নিং অফিসার দেয়া হয়েছে তিনি সুষ্ঠু ও অংশ্রগহণমূলক নির্বাচন করার ব্যবস্থা করবেন বলে আশা করি।
এ প্রতিবেদকের সঙ্গে আলাপকালে তিনি বলেন, হলের মধ্যে নির্বাচন হবে বলে অনেকের সংশয় আছে। আমার মতে যেহেতু নির্বাচনটিই হল সংসদ নির্বাচন, তাই সেটি হলেই হতে হবে। তবে হলের ভেতরের পরিবেশ যাতে ভালো থাকে, কারো যেন কোনো ধরনের সন্দেহের অবকাশ না থাকে, সে জন্য সিসি ক্যামেরার ব্যবস্থাসহ সকল নিরাপত্তা নিশ্চিত করা প্রয়োজন। ব্যালট পেপার বাক্স হলে রাখা যাবে না। এগুলো সকালে হলে পাঠালেই হবে। এটি নির্বাচন সুষ্ঠু হওয়ার জন্য ভালো পদক্ষেপ। তাছাড়া ছাত্র সংগঠনগুলো যদি তাদের স্বঅবস্থানে বিশ্বাস করে এবং সবাই যদি অবাধে প্রচার-প্রচারণা চালাতে পারে, কেউ যাতে বাধা সৃষ্টি না করে, তাহলে একটি অংশগ্রহণমূলক নির্বাচন হবে বলে আমি আশা করি। ডাকসু নির্বাচনে যেহেতু শিক্ষিত, সুশৃঙ্খল ভোটার এবং পরস্পরের বন্ধু তাই সেখানে নির্বাচনটি ভালোভাবে সম্পূর্ণ হবে এটিই আমার প্রত্যাশা। এ জন্য ছাত্র সংগঠনগুলোকেই স্ব স্ব অবস্থান থেকে ভূমিকা রাখতে হবে। তারা ঠিক থাকলে কোনো সমস্যা হবে না। সরকারদলীয় ছাত্র সংগঠন ছাড়া অন্যদের মনে কোনো শঙ্কা থেকে থাকলে সেটি দূর করার দায়িত্ব ক্ষমতাসীন দলের ছাত্র সংগঠনটির। তাদের কাজের মাধ্যমে সবার আস্থা অর্জন করতে হবে। কারণ অফিসিয়ালি যিনি রিটানিং অফিসার তিনি শুধু আইনের মাধ্যমে কাজ করবেন। তাই বিশ্ববিদ্যালয়ের পরিবেশ ঠিক রাখার দায়িত্ব কিছুটা সরকারদলীয় ছাত্র সংগঠনের। তারপরও কেউ যদি অংশগ্রহণ করতে না চায় তাদের অংশগ্রহণ করারনোর দায়িত্ব রিটার্নিং অফিসারের না। তবে রাজনৈতিক দলগুলো যেভাবে সংলাপ করে সেভাবে ছাত্র সংগঠনগুলো সংলাপে বসতে পারে। সবাই মিলে কীভাবে নির্বাচনটি সুষ্ঠু করা যায় সে ব্যবস্থা করতে পারে এবং এ সংগঠনগুলোর সিনিয়র নেতারা ভালো ভূমিকা রাখতে পারে।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত