প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

ভালোবাসার অভাবে অশান্তি সৃষ্টি হয় সমাজ এবং সংসারে

আমিন মুনশি : স্বামী-স্ত্রীর মাঝে মিল মহব্বত ও ভালোবাসা না থাকলে সংসারে অশান্তির সৃষ্টি হয়। তাই মহব্বত ও ভালোবাসার এই বন্ধনকে অটুট রাখতে স্ত্রীকে অবশ্যই নিজের সতীত্ব ও স্বামীর সম্পদের প্রতি খেয়াল রাখতে হয়। স্বামীর ধন-সম্পদ স্ত্রীর কাছে যেমনিভাবে আমানত, স্ত্রীর সতীত্ব রক্ষা করাও আমানত।

ইসলাম স্ত্রীদেরকে বলে দিয়েছে তারা যেন স্বামীর আমানতের কোনো রকম খেয়ানত না করে। আল্লাহ তায়ালা বলেন, আয়াতের মর্মবাণী হলো ‘সৎ চরিত্রবান নারী সে, যে স্বামীর অনুগত হয়ে চলে। স্বামীর অনুপস্থিতিতে নিজের সতীত্ব ও স্বামীর সম্পদ রক্ষা করে।’(সূরা নিসা : ৩৪)

স্বামীদের কে নির্দেশ দিয়েছে তারা স্ত্রীদের সাথে ভালো ব্যবহার করবে। তাদের প্রতি দয়া ও কোমলতা প্রদর্শন করবে। এবং নিজের সাধ্য অনুযায়ী ভালো খাওয়াবে ও ভালো পরিধান করাবে। স্ত্রীদের সাথে খারাপ আচরণ করবে না। তাদের হক নষ্ট করবে না। এবং সব ধরণের হিংস্রতা থেকে দূরে থাকবে

সুষ্ঠ সমাজ গঠনে ইসলামের অন্যতম শিক্ষা হলো, প্রতিবেশীর সঙ্গে সদাচরণ করা। ইসলাম যেভাবে বাবা-মা, স্বামী-স্ত্রী, আত্মীয়স্বজনের সঙ্গে সদাচরণের নির্দেশ দিয়েছে, তদ্রুপ প্রতিবেশীর সঙ্গেও সদাচরণের নির্দেশ দিয়েছে। কোরআনে বর্ণিত হয়েছে, ‘তোমরা আল্লাহর ইবাদত করো, তাঁর সঙ্গে কাউকে শরিক করো না। বাবা-মার সঙ্গে ভালো ব্যবহার করো এবং নিকটাত্মীয়, এতিম, মিসকিন, নিকটবর্তী ও দূরবর্তী প্রতিবেশী, পার্শ্ববর্তী সহচর, পথিক ও দাস-দাসীর সঙ্গে সদয় ব্যবহার করো। নিশ্চয়ই আল্লাহ্ অহংকারী-দাম্ভিককে পছন্দ করেন না।’ (সূরা নিসা : ৩৬) রাসুল (সা.) বলেন, যে ব্যক্তি আল্লাহ ও শেষ দিনের প্রতি ঈমান রাখে, সে যেন তার প্রতিবেশীর সাথে সদাচরণ করে।’ (বুখারী : ৬০১৯; ইবনে মাজাহ : ৩৬৭২)

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত