প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

কালকিনির ডাসারে এক এসএসসি পরীক্ষার্থীকে নির্যাতনের অভিযোগ: হাসপাতালে ভর্তি

কালকিনি (মাদারীপুর) প্রতিনিধি: তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে মাদারীপুরের কালকিনি উপজেলার ডাসার থানাধীন সরকারি শেখ হাসিনা উইমেন্স একাডেমীতে এক এসএসসি পরীক্ষার্থীকে নির্যাতনের অভিযোগ পাওয়া গেছে। পরে আহত শিক্ষার্থীকে গুরুতর অবস্থায় মাদারীপুর সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এসময় শিক্ষার্থীরা হাসপাতালের সামনে পুলিশের বিচার দাবী করে বিক্ষোভ করে।

সহপাঠী, পুলিশ, পরিবার ও হাসপাতাল সূত্রে জানা গেছে, মাদারীপুরের ডাসার থানাধীন সনমন্দি উচ্চ বিদ্যালয়ের এসএসসি পরীক্ষার্থী জাহিদ খান একই থানার সরকারি শেখ হাসিনা উইমেন্স এন্ড একাডেমীতে ধর্ম পরীক্ষার সময় শ্রেণী কক্ষে পরীক্ষা কেন্দ্রের কাছের এক ছাত্রী মিতু আক্তারের সাথে তুচ্ছ বিষয় নিয়ে কথা কাটাকাটি হলে পরীক্ষা শেষে কলেজ কেন্দ্রের বাইরে গেটের কাছে জাহিদ এলে ওই মেয়ে শিক্ষার্থী মিতুর বাবা আনিস তালুকদার ও ভাইয়েরা মিলে জাহিদকে মারধর করার সময় তাদের সাথে কেন্দ্রের দায়িত্বে থাকা পুলিশ কনস্টবল জামালসহ কয়েক জন পুলিশও বেধরক ভাবে জাহিদকে পিটিয়ে গুরুতর আহত করে। পরে অজ্ঞান অবস্থায় অন্যান্য সহপাঠীরা তাকে মাদারীপুর সদর হাসপাতালে নিয়ে আসে।

আনিসা নামে আহত জাহিদের এক সহপাঠি বলেন, আমাদের সামনে পুলিশ জাহিদকে নির্যাতন করেছে। পুলিশকে আমরা অনুনয় বিনয় করলেও শুনেনি। মারতে মারতে লাঠি ভেঙ্গে ফেলে। পরে হেলমেড দিয়েও পিঠায়। তখন জাহিদ বমি করে দিলে পরে ছেড়েছে। আমরা ওই পুলিশের বিচার চাই।

তবে জাহিদের ভাই জহির খান ও তার সহপাঠীরা বলেন, পুলিশ জাহিদকে কলেজের একটি রুমে নিয়ে গিয়ে বেধরক ভাবে পিটিয়ে আহত করে। পরে অজ্ঞান অবস্থায় তাকে হাসপাতালে ভর্তি করানো হয়।

এ ব্যাপারে ডাসার থানার ওসি গোলাম কিবরিয়া পুলিশের হাতে নির্যাতনের কথা অস্বীকার করে বলেন, মিতু ও জাহিদের কথা কাটাকাটি নিয়ে মারধরের ঘটনা ঘটেছে। এখানে পুলিশ তাকে নির্যাতন করেনি।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত