প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

নগর পরিবহন ব্যবস্থায় ডিজিটাল সমন্বিত ই-টিকিটিং সেবা চালু করবেন আতিকুল

শাকিল আহমেদ: ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশন উপনির্বাচনে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ মনোনীত মেয়র পদপ্রার্থী আতিকুল ইসলাম তার নির্বাচনী ইশতেহার ঘোষণা করেছেন। মঙ্গলবার গুলশানের লেকশোর হোটেলে আয়োজিত এক আনাড়ম্বরপূর্ণ অনুষ্ঠানে তার নির্বাচনী ইশতেহার প্রকাশ করেন।

ডিএনসিসির উপ নির্বাচনে তার নির্বাচনী ইশতেহারে ডিজিটাল উদ্যোগগুলোর মধ্যে কী কী রয়েছে জানিয়ে আতিকুল ইসলাম বলেন, ডিজিটাল প্রযুক্তিতে ট্রাফিক সিস্টেম নিয়ন্ত্রণ, অ্যাপের মাধ্যমে নাগরিক সমস্যা সরাসরি প্রেরণ ও সমাধান, সকল নগর পরিবহন ব্যবস্থার জন্য একটি ডিজিটাল-সমন্বিত ই-টিকিটিং সেবা চালু করা হবে। পাশাপাশি ডিজিটাল আরও নানা পদক্ষেপ থাকবে নাগরিক সমস্যা সমাধানে বলে জানান আতিকুল ইসলাম।

আতিকুল ইসলাম এর নির্বাচনী ইশতেহারের মূল প্রতিশ্রুতিতে উল্লেখ করে বলেন, ‘সবাই মিলে সবার ঢাকা’-নাগরিক ও প্রশাসন একতাবদ্ধ হয়ে একটি সুস্থ, সচল ও আধুনিক ঢাকা গড়ে তোলার আহ্বান।

আতিকুল ইসলাম তার বক্তব্যে বলেন, নগরবাসীদের সাথে মিলে নাগরিক সমস্যা গুলো একসাথে সমাধানের গুরুত্ব জোরদার করতে চাই। ঢাকার শুধু আমার শহর নয়, এই শহর আপনারও। আমাদের সামান্য সচেতনতা এবং একটু সহযোগিতা এই নগরীর প্রাপ্য। আমি বিশ্বাস করি আমরা সবাই যে যার জায়গা থেকে আমাদের ন্যূনতম করণীয়টা যদি করে যাই তাহলে আমরা পাবো সত্যিকার অর্থে আমাদের অতিকাঙ্ক্ষিত আধুনিক, গতিময় এবং প্রগতিশীল নগরী।

তার ঘোষিত ইশতেহারে বিষয়সূচির মধ্যে পূর্ববর্তী প্রশাসনের সময়কালে শুরু করা প্রকল্পের পরিপূর্ণতা যেমন গুরুত্ব পেয়েছে তেমনি প্রাধান্য পেয়েছে ঢাকাবাসীর জন্য ঢাকা শহরকে সুবসবাসোপযোগী করে গড়ে তোলার উদ্দেশ্যে নেয়া এবং বিশদ নতুন পরিকল্পনা। এর মধ্য মশা নিধন, বিশুদ্ধ বাতাস ফিরিয়ে আনা খেলাধুলা ও অন্যান্য গঠনমূলক কর্মকাণ্ডের জন্য উন্মুক্ত আর ও মাঠ তৈরি, ড্রেনেজ ব্যবস্থার উন্নয়ন, বহুতল ভূগর্ভস্থ কমপ্লেক্স নির্মাণের বিশেষ উল্লেখযোগ্য বলে জানান ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশন উপ নির্বাচনে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ মনোনীত মেয়র পদপ্রার্থী আতিকুল ইসলাম।

নির্বাচনী ইশতেহার ঘোষণা অনুষ্ঠানে আওয়ামী লীগের নেতৃবৃন্দ ছাড়াও উপস্থিত ছিলেন ব্যবসায়ী সাংস্কৃতিক ও অন্যান্য পরিমণ্ডলের বিশিষ্ট ব্যক্তিরা।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত