প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

পশ্চিম তীর ও গাজা উপত্যকাকে ফিলিস্তিনিদের বাসভূমির স্বীকৃতি নেদারল্যান্ডসের

দুর্জয় চক্রবর্তী: ইসরায়েল রাষ্ট্র প্রতিষ্ঠিত হওয়ার পর জন্ম নেয়া ফিলিস্তিনিদের জন্মস্থান হিসেবে পূর্ব জেরুজালেমসহ অধিকৃত পশ্চিম তীর ও গাজা উপত্যকাকে আনুষ্ঠানিকভাবে স্বীকৃতি দেয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে নেদারল্যান্ডস। আল জাজিরা।

১৯৪৮ সালের ১৫ মে ব্রিটিশ উপনিবেশের অবসান ঘটে ফিলিস্তিনে। তবে ফিলিস্তিনকে এখনো রাষ্ট্র হিসেবে স্বীকৃতি দেয়নি নেদারল্যান্ডস।
শনিবার নেদারল্যান্ডসের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রনালয় প্রকাশিত একটি বার্তায় বলা হয়, ডাচ কর্তৃপক্ষ এখন থেকে অধিকৃত পশ্চিম তীর ও গাজা উপত্যকাকে তাদের অঞ্চলসমূহের তালিকায় অধিভুক্ত করবে। তবে বার্তাটিতে আরো বলা হয় , ‘ডাচ কর্তৃপক্ষ উক্ত অঞ্চলগুলোতে ইসরায়েলের সার্বভৌমত্ব নেই বলে বিশ্বাস করে। তবে একইসাথে ইসরায়েলকে রাষ্ট্র হিসেবে স্বীকৃতি দান থেকে বিরত থাকার অবস্থানও বজায় থাকবে ডাচদের।’ নব্বইয়ের দশকে ইসরায়েল ও প্যালেস্টাইন লিবারেশন অরগানাইজেশনের মধ্যকার চুক্তি ও এর প্রেক্ষিতে আনা জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদের সনদ অনুযায়ী পৌর নিবন্ধনের তালিকাটি তৈরি হয়েছে বলে বার্তাটিতে বলা হয়।

ডাচ বংশোদ্ভূত ফিলিস্তিনিরা এতদিন তালিকায় তাদের জন্মস্থান হিসেবে ‘ইসরায়েল’ অথবা ‘অজ্ঞাতস্থান’ কে নির্ধারন করতে পারত। তবে পরবর্তীতে ফিলিস্তিনি বংশোদ্ভূত এক ডাচ নাগরিক ইউরোপীয় মানবাধিকার আদালতে নিজের জন্মস্থান হিসেবে ফিলিস্তিনের অন্তর্ভূক্তির আবেদন জানিয়ে নেদারল্যান্ডের বিরূদ্ধে আইনগত অবস্থান নেয়ার প্রেক্ষিতে এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয় বলে দাবি করেছে ডাচ বার্তা সংস্থা নস।

উল্লেখ্য, জাতিসংঘ সাধারণ পরিষদসহ বিশ্বের কমপক্ষে ১৩৬টি রাষ্ট্র ফিলিস্তিনকে সার্বভৌম রাষ্ট্রের স্বীকৃতি দিলেও ইউরোপীয় ইউনিয়নভুক্ত অধিকাংশ রাষ্ট্র স্বীকৃতিদান থেকে বিরত রয়েছে।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত