প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

সবার আগে মাতা-পিতা ও সন্তান

আলফা আরজু

পৃথিবীতে কিছু ইউনিভার্সাল রোল আছে। অন্য সকল পেশা/পদ-পদবির মতো সেগুলোর আলাদা করে ‘জব ডেসক্রিপশন’- লেখা থাকে না কোথাও। কিন্তু সেই ‘দায়িত্ব ও কর্তব্যে’ যদি আপনি এতোটুকু ‘অবহেলা-অগ্রাহ্য-অনীহা’ করেন, তাতে আপনি পৃথিবীর যতো বড় মানবিক ও দায়িত্ববান মানুষ হয়ে থাকুন না কেন, আমার দৃষ্টিতে আপনি একজন অপরাধী। সেই রোল/পদ-পদবি/জবের নাম হচ্ছে- ‘মা-বাবা ও সন্তান’। আপনি যখন মা-বাবা, তখন সন্তানের খাওয়া, পড়া, চিকিৎসাসহ সবকিছু আপনার জন্য অত্যাবশ্যক পালনীয় বিষয়। এখানে ইলেক্টিভ বা ঐচ্ছিক কোনো বিষয় নেই। আজকে সন্তান অসুস্থ হলে আপনাকে আজকেই তার চিকিৎসার ব্যবস্থা করতে হবে। এখানে পরে করবো, এর সুযোগ নেই।
আপনার সাথে আপনার পার্টনারের সম্পর্ক আছে, কী নেই দিয়ে কিছু আসে যায় না। আপনার লাইন ধইরা ‘জবেদা-সফেদা’, ‘আলম-শাহালম, নামে কটা প্রেমিক আছে-নেই দিয়ে এই দায়িত্বে অবহেলার সুযোগ নেই। প্রেমিকার মা অসুস্থ নাকি প্রেমিকারে নিয়ে কলকাতা-মালয়েশিয়া-সিঙ্গাপুর শপিংয়ে যাবেন তাতেও- সন্তানের প্রতি দায়িত্বে অবহেলা- অন্যরা মেনে নিলেও যিনি ভুক্তভোগী তার কাছে ক্ষমা নেই। এটা এমন বিষয়। অন্যদিকে আপনি যখন প্রাপ্তবয়ষ্ক, আর্থিক ও মানসিকভাবে সক্ষম একজন মানুষ। মাতা-পিতার প্রতি আপনার দায়িত্বে অবহেলা মেনে নেয়ার যতো বড় যুক্তিই থাকুক। আমি সেসব আমলে নেয়ার মানুষ নই। এই দুটি রোলে সফল হওয়া আসলেই দুষ্কর। বিশেষ করে আমাদের দেশের কোনো কোনো মানুষের জন্য। কারণ আমরা মুখ ফুটে চিৎকার করে বলতে পারি না- ‘আমার সন্তান ও মাতা-পিতার’ প্রতি আমার দায়িত্ব সবার আগে। আমরা কেউ কেউ এমনই নড়বড়ে ব্যক্তিত্বের অধিকারী যে সন্তানের প্রতি মাতা-পিতার প্রতি ভালোবাসা দেখাতে কার্পণ্য করি। তখনই হয় সমস্যা। সমাজ ও সংসারে কিছু তৃতীয় পক্ষ/স্টেকহোল্ডার থাকে। তারা ভাবেন, পাইছি। এই বেটা-বেটির সংসার তো নিলামে। এটা নিয়ে এবার টুইস্ট কইরা ‘টু-পাইস’ কামিয়ে নিই।
যখন আপনি কারোর মুখের ওপর বলতে না পারবেন, আপনার কাছে আপনার ‘সন্তান ও মা-বাবা সবার আগে। তখন আপনার বাইরে প্রেমিক-প্রেমিকা জুটবে। ঘরে জুটবে কিছু ঘষেটি বেগম-মীরজাফর ভাইয়া। যারা…। তাই বাইরের সকল ‘জবেদা-সফেদা’, ‘আলম-শাহালম’ ও ‘পারিবারিক তৃতীয় পক্ষ-স্টেকহোল্ডারের’ প্রতি দায়-দায়িত্ব-ভাব-ভালোবাসা দেখানোর আগে সামনে-পেছনে তাকিয়ে দেখুন আপনি সঠিকভাবে ‘সন্তান ও মাতা-পিতার’ প্রতি দায়িত্ব পালন করছেন তো। পাদটীকা : আমি নিজে মা ও সন্তান। আমার কাছে আমার সন্তান ও মাতা-পিতা সবার আগে। তারপর ‘জবেদা-সফেদা’, ‘আলম-শাহালম’ ও ‘পারিবারিক তৃতীয় পক্ষ-স্টেকহোল্ডার’…। ফেসবুক থেকে

সর্বাধিক পঠিত