প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

উপাচার্যের সদিচ্ছা থাকলেই ডাকসু নির্বাচন সম্ভব, বলছেন সাবেক উপাচর্যরা

হ্যাপি আক্তার : ডাকসু নির্বাচনকে ঘিরে সরগরম পুরো ক্যাম্পাস। রাজনৈতিক চাপ থাকলেও, উপাচার্যের সদিচ্ছায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদডাকসু নির্বাচন সম্ভব। এমনটাই বলছেন সাবেক উপাচার্যরা। সুষ্ঠু নির্বাচন অনুষ্ঠানের জন্য কিছু পরামর্শও দিচ্ছেন তারা। বলছেন, সবার আগে নিশ্চিত করতে হবে ভিন্ন মতের সহাবস্থান। চ্যানেল ২৪।

প্রায় তিন দশক পর ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদ ডাকসু নির্বাচনকে ঘিরে সরগরম পুরো ক্যাম্পাস। যদিও অনিশ্চয়তার ঘোর কাটছে না শিক্ষার্থীদের মধ্যে। এই তিন দশকে সাত উপাচার্য বিশ্ববিদ্যালয়ের দায়িত্বে থাকলেও কেউই কাটাতে পারেননি ডাকসুর নির্বাচন খরা।  তবে, নিজেরা না পারলেও বর্তমান প্রশাসন যে বহু আকাক্ষিত ডাকসু নির্বাচন সফলভাবেই শেষ করবেন এমন আশাবাদ তাদের। দিলেন সফলতার পরামর্শ। বলছেন, এখনো অনেক কাজ বাকি। বিশেষ করে শক্ত হাতে হল এবং ক্যাম্পাসে শিক্ষার্থীদের মাঝে সহাবস্থান তৈরি করতে হবে।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক উপাচার্য এ কে আজাদ চৌধুরী বলেছেন, শুধু বৈধ শিক্ষার্থীদের আইডিকার্ড দিয়ে আমরা অনেক অবস্থান তুলে দিতে পেরেছিলাম। চেষ্টা করা চালছিলো আমরা নির্বাচন দেবো। কিন্তু তারপরে দুএকটি বিষয় হয়েছে, যাতে আমি খুব উৎসাহিত বোধ করিনি। তিনি আরো বলেন, প্রার্থী হওয়ার মনোভাব নিয়ে সকলেই যদি সমানভাবে দায়িত্বশীল আচরণ করে, তাহলে সহাবস্থানটি আরো সুন্দর হবে।  ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক উপাচার্য এস এম এ ফায়েজ বলেছেন, ডাকসু নির্বাচনের বিষয়টি আলোচনা করেছিলাম, কিন্তু তারপরে অনুমোদন দেইনি। কারণ মনে হচ্ছিলো, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের জন্য ভালো কিছু করতে গেলে হয়তো সমস্যার সৃষ্টি হতে পারে।

তিনি আরো বলেন, বর্তমান প্রশাসন বা উপাচার্যের জন্য ডাকসু নির্বাচন করা একটি চ্যালেঞ্জের বিষয়। হলগুলোকে সহাবস্থান তৈরি হলে, তাহলেই বিশ্ববিদ্যালয়ের নির্বাচন অনেক দূর এগিয়ে যাবে।  ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক উপাচার্য আ আ ম স আরেফিন সিদ্দিক বলেছেন, ছাত্র সংগঠনের জন্য অভ্যন্তরীণ ও আন্তঃকোন্দল বা বিরোধের কারণে ডাকসু নির্বাচন দেয়া হয়নি।
তিনি আরো বলেন, ডাকসুতে নির্বাচন দেয়া হোক, এই দাবি সকল মহলের। প্রতিটি তথ্য, প্রতিটি মুহুর্তের খবর সারা দেশবাসী যেন যানে। স্বচ্ছতার ভিত্তিতে যেন সব কিছু পরিচালিত হয়, সে দিকেও প্রশাসনকে লক্ষ্য রাখতে হবে। সম্পাদনা : রাজু

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত