প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

রাজসিক জয় কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ার, উৎসবের নগরী এখন কুমিল্লা

মাহফুজ নান্টু: চারদিকে মিছিল। আঁতশবাজি ফটকার আর আলোর ঝলকানির সাথে তরুণ যুবকদের মিছিলে মিছিলে গোটা কুমিল্লা হয়ে উঠে উৎসবের জনপদ। নগরীর প্রাণকেন্দ্র কান্দিরপাড় থেকে প্রত্যন্ত পল্লীতে গভীর রাত পর্যন্ত চলে উৎসবের আমেজ। বিপিএলের এবারের আসরে শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত জনপ্রিয়তা ধরে রেখে রাজসিকভাবে দ্বিতীয়বারের মতো শিরোপা জিতে নেয় কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স।

১৯৯ রান করে ভিক্টোরিয়ান্স ঢাকা ডিনামাইটসকে ২০০ রানের টার্গেট বেধে দেয়। আর এত বিশাল রানের টার্গেটে শুরুতে এক উইকেট পড়লেও ঘুরে দাড়ায় ঢাকা ডিনামাইট। আর এদিকে জয়ের জন্য মরিয়া খেলোয়াড়দের সাথে মাঠের ভেতরে বাহিরে থাকা কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্সয়ের দর্শকদের কপালে চিন্তার ভাঁজ প্রসারিত হয়ে উঠে।

মাঠের বাহিরে নিজ জেলার প্রিয় দলের খেলার প্রতিটি মুহূর্ত উপভোগ করতে নগরীর প্রধান সড়কের পাশে খোলা জায়গায় মাল্টিমিডিয়া প্রজেক্টর- টিভি শো রুমের সামনে ভীড় করে দর্শক সমর্থকরা। এ যেন রাজনীতি- ধর্মবর্ণ সব বৈষম্য ভুলে এক সূতোয় গেথে থাকা কুমিল্লা।

বড় পর্দায় খেলা দেখেছে কুমিল্লার সর্বস্তরের ভিক্টোরিয়ান্সের দর্শক-সমর্থকরা। প্রতিটি চার-ছক্কার সাথে আতঁশবাজি হৈ-হুল্লুড়ে মেতে উঠছে কুমিল্লার তরুণরা। টিভি পর্দায় গ্যালারিতে ভিক্টোরিয়ান্সের শুভ কামনাসহ স্লোগান লেখা দেখলেই সমস্বরে চিৎকার করে প্রিয় দলের প্রতি আকুন্ঠ সমর্থণ জানান দিয়ে শিরোপা জিতেই উৎসব করেছে কুমিল্লায় থাকা দর্শকরা।

সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায় , রাত ১১টায় নগরীর প্রাণকেন্দ্র কান্দিরপাড়ে কিশোর তরুণর এক মহাসমুদ্র। হাততালির সাথে স্লোগান একটাই কুমিল্লা।

কুমিল্লা মহানগরীর শিল্পাঞ্চল হিসেবে পরিচিত বিসিক, বাদুড়তলা, ঝাউতলা, শাসনগাছা ও রেইসকোর্স এলাকায় সড়কের পাশে খোলা জায়গাগুলোতে থেকে খন্ড খন্ড মিছিলগুলোই মূলত উৎসবের অলংকার হয়ে উঠে। সকল পেশা শ্রেণির মানুষরা উকিঝুকি দিয়ে খেলা দেখছে। কেউ কেউ পাশে থাকা রিক্সায় দাড়িয়ে বড় পদায় খেলা দেখছে।

বিজয় নিশ্চিত হওয়ার পর কুড়িগ্রাম থেকে আসা রিকশা চালক ফয়জুল তার বন্ধুর সাথে বাজি ধরেছে কুমিল্লার পক্ষে। শুধু বাজি জয়ই নয় কুমিল্লার বিজয় যেন কুড়িগ্রামের বিজয়।

নগরীর ইর্ষ্টাণ প্লাজায় ফ্রি ওয়াইফাই ইন্টারনেট থাকায় হাতের মুঠো ফোনে খেলা দেখতে দেখতে বিজয় উদযাপন করে বাড়ি ফিরেছে শতাধিক যুবক।

গতকাল রাতটি কুমিল্লার প্রত্যন্ত এলাকাতে ছিলো স্মরণ করে রাখার মতো। গ্রামের রাস্তার মোড়ে ছোট ছেলেমেয়েদের সাথে বয়স্কদের ভীড় ছিলো লক্ষণীয়।

নগরীর বিসিক এলাকায় বড় পর্দায় বন্ধুদেও নিয়ে খেলা দেখার আয়োজন করেছে কোটবাড়ী পলিটেকনিক ইন্সটিটিউটের শিক্ষার্থী তানিম। তানিম জানায়, ভিক্টোরিয়ান্স ফাইনাল খেলবে তাই আগে থেকে বড় পর্দায় খেলা দেখার পাশাপাশি বারবিকিউ পার্টির আয়োজন করেছি। খেলা দেখছে তানিম ও তার বন্ধুরা। আর প্রতিমুহূর্তে হাতে তালি দিয়ে উইন অর উইন স্লোগানে মুখরিত করে তুলছে গোটা বিসিক এলাকা।

এদিকে নগরীর বাইরে বিভিন্ন উপজেলা থেকে খবর পাওয়া যায়, বিভিন্ন সংগঠনের পক্ষে বড় পর্দায় খেলা দেখার আয়োজন করেছে । প্রিয় দলের খেলা দেখতে রাস্তার মোড়ে অলি-গলি পাড়ার মোড়ের চায়ের দোকানে দলমত নির্বিশেষে সবাই এক হয়ে কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্সের খেলা দেখছে। আর গভীর রাতে বাড়ী ফিরিছে উৎসবের আমেজ নিয়ে । এক উৎসবের রজনী পার করেছে গোটা কুমিল্লা।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত