প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

শীতে পাথরঘাটায় গরম কাপড়ের চাহিদা বেড়েছে

পাথরঘাটা (বরগুনা) প্রতিনিধি: শীত বাড়ার সাথে সাথে পাথরঘাটাতে গ্রামাঞ্চলের মার্কেটগুলো সহ শহরের মার্কেট গুলোতেও গরম কাপড়ের বাজার জমে উঠেছে। উচ্চ আয়ের মানুষেরা বিভিন্ন নামিদামি মার্কেট থেকে বিভিন্ন প্রকারের দামি গরম কাপড় কিনতে পারলেও গরীব ও নিম্ন আয়ের মানুষ গুলো ফুটপাতে হকারদের বিক্রি করা গরম কাপড়ই ভরসা।

খোঁজ নিয়ে দেখা গেছে, সাগর পাড়ের পাথরঘাটা শহরের বিভিন্ন ফুটপাতে এখন ক্রেতাদের ভিড়। আসেন আসেন, বাইছ্যা লন দেইখ্যা লন, শেষ শেষ, যাচ্ছে বেশ, এক দাম এক রেট; ক্রেতাদের আকৃষ্ট করতে সকাল থেকে রাত পর্যন্ত এরকম হাঁকডাকে মুখরিত হচ্ছে ফুটপাতের দোকানগুলো। সকাল থেকে শুরু করে গভীর রাতেও চলে কেনাকাটা। ক্রেতাদের উপস্থিতিই বলে দিচ্ছে শীত আসছে। উপজেলার বিভিন্ন স্থান থেকে আসা লোকজনের বেশিরভাগই ফুটপাত থেকে শীতের কাপড় কিনছেন। বিশেষ করে নিম্ন আয় এবং মধ্যবিত্ত আয়ের লোকজনের ভিড় লক্ষ করা গেছে। শীতের জ্যাকেট, সোয়েটার, শাল কোট, ব্লেজার, মাথার টুপি, কানটুপি, হাতমোজা, মোজা, গলাবন্ধ চাদরসহ গায়ের বিভিন্ন গরম কাপড় বিক্রি করছেন দোকানিরা। নিম্ন আয়ের মানুষ ৫০ টাকা থেকে ২০০ টাকায় গরম কাপড় পেয়ে খুশি।

শীতের তীব্রতা বেড়ে যাওয়ায় উপকূলীয় এলাকা বরগুনার পাথরঘাটায় বিপর্যস্ত হয়ে পড়েছে মানুষের স্বাভাবিক জীবনযাত্রা। তীব্র শীতে সবচেয়ে দুর্ভোগে পড়েছে ছিন্নমূল ও নিম্ন আয়ের মানুষ। স্কুল-কলেজগামী শিক্ষার্থীসহ জীবিকার তাগিদে কর্মজীবী ও শ্রমিজীবি মানুষ শীত উপেক্ষা করে বের হলেও, শীতের তীব্রতায় কষ্ট দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে। গরম কাপড়ের অভাবে এবং শীতের প্রকোপ থেকে সাময়িক রক্ষার জন্য খড়ের আগুনের উষ্ণতা নিচ্ছেন অনেকেই। প্রচন্ড ঠান্ডায় বৃদ্ধ ও শিশুদের চরম দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে। ফুটপাতে বসবাসরত অসহায় লোকদের অবস্থা আরো শোচনীয়। শীতের সাথে পাল্লা দিয়ে ঠান্ডাজনিত কারণে বিভিন্ন রোগের দুপ্রভাব বাড়ছে।

মার্কেটের ফুটপাতের ব্যবসায়ী মামুন বলেন, ক্রেতাদের আকৃষ্ট করার জন্যই এ পদ্ধতিটি বেশ কাজে আসছে। এখানে ৫০ থেকে ২০০ টাকার মধ্যে মোটামুটি উন্নতমানের শীতসামগ্রী পাওয়া যায়। কম দাম হলেও প্রতি মাসে কমপক্ষে ৩০ হাজার টাকা প্রায় লাভ হয়। এ দিয়ে পরিবার-পরিজন নিয়ে ভালোভাবেই চলে।

শীতে লেপ কিনতে আসা এক কৃষক মোঃ জাকির হোসেন জানান, আমার বাড়িতে শীতের সময় আমার নাতি-নাতনিরা শীতের পিঠা খেতে আসায় রাতের প্রচন্ড শীত থেকে রক্ষা পাওয়ার জন্য এই লেপ কেনা।

পাথরঘাটা পৌর শহরের মার্কেটে  শীতের পোষাক কিনতে আসা সাথী খান জানান, বাচ্চাদের ও নিজের জন্য গরম পোশাক কিনতে এসেছি। দু’টি মোজা কিনেছি ৫০ টাকা দিয়ে এবং দুটি সোয়েটার কিনেছি ৬৫০ টাকায় করে। আর ৪ টা গেঞ্জি কিনেছি ১০০ টাকায়। গত শীতে ভালো গরম কাপড় না থাকায় আমার বাচ্চা কষ্ট পেয়েছে।

সর্বাধিক পঠিত