প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

বিএনপি নেতৃত্বাধীন জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের ভবিষ্যৎ অন্ধকার : কাদের

আহমেদ জাফর: আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের জাতীয় ঐক্যফ্রন্টকে উদ্দেশ্যে করে বলেছেন, যে দলের নেতাদের ঝুঁকি নেয়ার সাহস নেই, তাদের ভবিষ্যৎ অন্ধকার। সেদিক থেকে বিএনপি নেতৃত্বাধীন জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের ভবিষ্যৎও অন্ধকার।

বৃহস্পতিবার (৭ ফেব্রুয়ারি) রাজধানীর ধানমন্ডিতে আওয়ামী লীগ সভাপতির রাজনৈতিক কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এসব মন্তব্য করেন।

ওবায়দুল কাদের বলেন, কালো ব্যাজ কালো পতাকা, মানববন্ধন (বিএনপি) এইসব ডাক দেবে, কিন্তু এতে কোনও সাড়া পাওয়া যাবে না। এসব নিয়েই তাদের থাকতে হবে। দলটির উদ্দেশ্যে আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক বলেন, ‘আন্দোলন-সংগ্রামের কথা না ভেবে বিএনপি নেতাদের উচিত কীভাবে ইমেজ সংকট কাটাবে সেটি নিয়ে এখন ভাবা। বিএনপির আন্দোলনে মানুষের সমর্থন নেই। তাই তাদের আন্দোলনের ইস্যুও তামাদি হয়ে গেছে। বিএনপি এখন আন্দোলনের ডাক দিলেও জনগণ সাড়া দেবে না’।

কাদের বলেছেন, বিগত সময়ে সন্ত্রাস ও দুর্নীতিতে সম্পৃক্ততার জন্য বর্তমানে বিএনপির ইমেজ সংকট চলছে। দেশে-বিদেশে তারা দুর্নীতির জন্য, সন্ত্রাসের জন্য ইমেজ সংকটে আছে। তাদের প্রথম এবং প্রধান কাজ হচ্ছে ইমেজ সংকট দূর করা।

তিনি বলেন, বর্তমান সরকারের ১৪ দলের শরিকদের সঙ্গে ক্ষমতা ভাগাভাগি নিয়ে আওয়ামী লীগের অন্তর্গত কোনও টানাপড়েন চলছে কি না জানতে চাইলে কাদের বলেন, তাদের সঙ্গে আমাদের কোনও সমস্যা নেই। কোনও টানাপোড়েন নেই। জাতীয় পার্টি অসন্তুষ্ট, এ ধরনের কোনও অভিযোগ নেই। সমস্যা হলে আমরা তো আছিই।’

ওবায়দুল কাদের বলেন, তারা সরকারে থাকতে চান কীভাবে? তারা মন্ত্রী হতে চান, এ কথা তারা কেউই বলেনি। আমাদের যারা মন্ত্রী ছিলেন, সিনিয়র মিনিস্টার, তারাই তো এখন স্ট্যান্ডিং কমিটির প্রেসিডেন্ট অনেকেই। দায়িত্বশীল ভূমিকা পালন করলেই তো হয়। দায়িত্বশীল ভূমিকা পালন করবে। গঠনমূলক সমালোচনাও তারা করতে পারেন। করার অধিকার আছে তাদের।

এছাড়া আগামী অক্টোবরে সম্ভাব্য কাউন্সিলের আগেই দলের সহযোগী সংগঠনগুলোর কাউন্সিল সম্পন্ন করার ব্যাপারে জোর দেয়া হচ্ছে বলে জানান আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক।

এসময় উপস্থিত ছিলেন আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুব-উল আলম হানিফ ও বিকল্পধারা বাংলাদেশের মহাসচিব মেজর (অব.) মান্নান প্রমুখ।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত