প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

সববয়সী নারীদের মন্দিরে প্রবেশে রাজি হয়েছে শরবীমালা মন্দির কর্তৃপক্ষ

লিহান লিমা: সববয়সী নারীদের মন্দিরে প্রবেশের বিষয়ে রাজি হয়েছে ভারতের শরবীমালা মন্দিরের ত্রিভাঙ্কর দেবাস্বম কমিটি। মন্দিরে নারীদের প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা তুলে নেয়ার সুপ্রিমকোর্টের রায়ের বিরুদ্ধে চ্যালেঞ্জ তুলে নেয়ারও ঘোষণা দিয়েছে তারা। আল জাজিরা, ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস

বুধবার কমিটির সভাপতি পদ্মকুমার স্থানীয় গণমাধ্যমকে বলেন, ‘গণতান্ত্রিক অধিকার এবং ভারতের সংবিধানের প্রতি শ্রদ্ধা রেখে সব বয়সের নারীদের মন্দিরে প্রবেশের অধিকারকে আমরা সম্মান জানাই। মন্দির কর্তৃপক্ষ বৈষম্যহীনতায় বিশ্বাস করে।’ মন্দির কমিটির আইনজীবি রাকেশ ত্রিভেদি বলেন, ‘সব বয়সের নারীদের মন্দিরে প্রবেশের বিষয়ে সুপ্রিমকোর্টের সিদ্ধান্তকে আমরা সম্মান জানানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছি।’

যদিও এর আগে সুপ্রিম কোর্টের রায়ের বিরুদ্ধে তীব্র প্রতিবাদ জানিয়ে মন্দির কর্তৃপক্ষ বলেছিলো, ‘শত বছরের ঐতিহ্য ভাঙতে দেয়া হবে না।’ এছাড়া মন্দিরের দেবতা আয়াপ্পান চিরকুমার হওয়ায় নারীদের প্রবেশে তিনি বিচলিত হতে পারেন বলেও তারা উদ্বেগ প্রকাশ করেন।

শরবীমালা ভারতের কয়েকটি মন্দিরের একটি যেখানে ১০ থেকে ৫০ বছরের নারীদের প্রবেশ নিষিদ্ধ। ২০১৬ সালে ভারতের ‘ইয়ং ল’ইয়ার এসোসিয়েশন’ সব বয়সের নারীর শরবীমালায় প্রবেশের দাবিতে পিটিশন দায়ের করে। ২০১৮ সালের ২৮ সেপ্টেম্বর সুপ্রিমকোর্ট এই নিষেধাজ্ঞা তুলে নেয়। মন্দিরের পুরোহিত এবং ভক্তরা এর বিরুদ্ধে কঠোর অবস্থান নেন। ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির দল বিজেপিও সুপ্রিম কোটের রায় কে ‘বিশ্বাসঘাতকতা’ বলে মন্তব্য করে। জানুয়ারিতে কেরালায় হাজারো নারী সুপ্রিমকোর্টের এই রায়ের প্রতি সমর্থন জানিয়ে ৬২০ কিলোমিটারের দীর্ঘ মানব র‌্যালি করেন। আদালতের রায়ের পর প্রথম নারী হিসেবে শরবীমালায় প্রবেশ করেন কঙ্কা দুর্গা (৩৯) এবং বিন্দু আমিনি (৪০)।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত