প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

শুটিং না করেই ফিরে গেলেন অঞ্জু ঘোষ

ডেস্ক রিপোর্ট : ‘বেদের মেয়ে জ্যোৎস্না’ করে তিনি রাতারাতি তারকা বনে যান। তারপর আর পেছন ফিরে তাকাতে হয়নি। অসংখ্যা হিট সিনেমা তিনি উপহার দিয়েছেন। তারপর হঠাৎ করেই চলে যান অন্তরালে। সেই অঞ্জু ঘোষ দীর্ঘ ২০ বছরের নীরবতার অবসান ঘটিয়ে ফের অভিনয়ে ফিরছেন। আর এ জন্য কলকাতা থেকে এসেছিলেন বাংলাদেশে। কিন্তু সিনেমার শুটিং না করেই আবার ফিরে যান কলকাতায়।

অঞ্জু ঘোষ ‘মধুর ক্যান্টিন’ চলচ্চিত্রে কাজ করার জন্য গত ২৩ জানুয়ারি বাংলাদেশে এসেছিলেন। এই ছবিতে তিনি মধু দার স্ত্রীর ভূমিকায় অভিনয় করবেন। সিডিউল অনুযায়ী ছবির শুটিং ১ ফেব্রুয়ারি থেকে শুরু হওয়ার কথা ছিল। কিন্তু এদিনই তিনি ফিরে যাচ্ছেন কলকাতায়। হচ্ছে না তার শুটিং।

এ বিষয়ে সিনেমাটির পরিচালক সাঈদুর রহমান সাঈদ বলেন, ‘দিদি পারিবারিক কারণেই কলকাতা চলে যাচ্ছেন। তবে আমাকে বলেছেন ১০ দিন পর আবার ফিরে আসবেন। উনাদের ওখানে কোনও একটা অনুষ্ঠান আছে। আমি আর বেশি কিছু জানতে চাইনি। তিনি যেহেতু বলেছেন, এর ওপর আর কথা চলে না। তবে দিদি বেশি দিন সময় নেবেন না বলেই জানিয়েছেন।’

প্রায় ২০ বছর ধরে ভারতের পশ্চিমবঙ্গের বাসিন্দা অঞ্জু। কলকাতা শহরের সল্ট লেকের তার নিজস্ব তিনতলা বাসাতেই বেশিরভাগ সময় কাটান তিনি। এছাড়া শহরের দমদম ও রাজারহাটে তার দুটি অ্যাপার্টমেন্টও আছে।

কোনও এক কারণে অঞ্জু ঘোষের পরিবারের সদস্যরা গতকাল (৩০ জানুয়ারি) কলকাতা থেকে ফোন দিয়ে তাকে দ্রুত যেতে বলেন। আর এ কারণেই ১ ফেব্রুয়ারি তিনি কলকাতা যাচ্ছেন।
‘মধুর ক্যান্টিন’ সিনেমায় মধুদার চরিত্রে অভিনয় করছেন ওমর সানী। আর সাংবাদিকের ভূমিকায় দেখা যাবে মৌসুমীকে। সিনেমায় মধুদার জীবনের ১৯৬৪ থেকে ১৯৭১-এর সময়টাই উঠে আসবে।

প্রসঙ্গত, বাংলাদেশ স্বাধীন হওয়ার আগে অঞ্জু ঘোষ ব্রাহ্মণবাড়িয়ার ভোলানাথ অপেরার হয়ে যাত্রায় নৃত্য পরিবেশন করতেন ও গান গাইতেন। ১৯৮২ সালে এফ কবীর চৌধুরী পরিচালিত ‘সওদাগর’-এর মাধ্যমে তার চলচ্চিত্রে অভিষেক ঘটে। এই ছবিটি ব্যবসায়িকভাবে সফল ছিল। তারপর ‘বেদের মেয়ে জ্যোৎস্না’ করে রাতারাতি তারকা বনে যান তিনি।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত