প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

স্বামীর উচ্চশিক্ষায় সঙ্গ দিতে চিকিৎসক হতে পারেননি হুমায়ন আহমেদের স্ত্রী গুলতেকিন

জাবের হোসেন: প্রখ্যাত লেখক হুমায়ন আহমেদের স্ত্রী গুলতেকিন বলেছেন, আমার চিকিৎসক হওয়ার স্বপ্ন ছিল। তাই হলিক্রসে স্কুলে সাইন্সে ভর্তি হয়েছিলাম। ওই বছর এপ্রিলের ২৮ তারিখে আমার বিয়ে হয়ে যায়। আমার স্বামী স্কলারশীপ নিয়ে ইংল্যান্ডে চলে যান, কিন্তু তখন পরিবার থেকে কেউ রাজি ছিল না, আমারও ইচ্ছা ছিলনা। তাই আর আমার বিদেশ যাওয় হয়নি। এরপর একবছরের মধ্যে আমার প্রথম সন্তান হয়।

এরপর পরীক্ষার মধ্যে আবার আমার স্বামী চিঠি পাঠিয়ে ইংল্যান্ডে যাওয়া কথা বলেন। তখনও আমি যেতে চাইনি। পরে আমার দাদা, ইব্রাহীম খানকে চিঠি পাঠিয়েছেন। দাদা আমার মাথায় হাত দিয়ে বলেদিলেন বিদেশে যাওয়াও শিক্ষার অংশ। তখন আমার চোখে পানি চলে আসে দাদাকে তো আর না করতে পারিনা। অতপর স্বামীকে সঙ্গ দিতে বিদেশে চলে যাই।

গুলতেকান আরো বলেন, উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষা দিতে পারিনি। আবার ফিরে যখন এসেছি তখন আর পরিক্ষর সুযোগ হয়নি। কেননা আবার দুবছর পরতে হবে। এর পরে আমার তিনটি বাচ্চা হয়েছে। পরে বাধ্য হয়ে ১৯৮৭ সালে আমার আলাদা হতে হয়েছে। এরপর দুসপ্তাহের মধ্যে প্রস্তুতি নিয়ে মানবিক বিভাগে পরীক্ষ দিয়ে ভর্তি হই। বাধ্য হয়েই আমি মানবিকে ইংরেজি বিষয়ে ভর্তি হই। ডাক্তারি পড়ার একটা আপসোস থাকলেও পরে আর আপসোস হয়নি। কেননা ছোট বেলায় যে লেখালিখি করতাম সেটা আবার ফিরে পেয়েছি। বিডি নিউজ২৪ ফেসবুক থেকে

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত