প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

রিজার্ভ চুরির মামলা টিকবে কি না, সংসদে সংশয়

নিউজ ডেস্ক : বাংলাদেশ ব্যাংকের রিজার্ভ চুরির যে মামলা নিয়ইয়র্কের আদালতে করা হয়েছে তা টিকবে কি না-সে ব্যাপারে জাতীয় সংসদে সংশয় প্রকাশ করেছেন জাতীয় পার্টির সাংসদ সাবেক প্রতিমন্ত্রী মুজিবুল হক চুন্নু।

আজ সোমবার রাতে জাতীয় সংসদে পয়েন্ট অব অর্ডারে মুজিবুল হক এ সংশয় প্রকাশ করেন। রিজার্ভের ১০ হাজার কোটি টাকা উদ্ধারের বিষয়ে সংসদে ৩০০ বিধিতে অর্থমন্ত্রীর বিবৃতি দাবি করেন তিনি।

সাবেক প্রতিমন্ত্রী মুজিবুল হক চুন্নু বলেন, আজ থেকে তিন বছর আগে বাংলাদেশ ব্যাংকের রিজার্ভ থেকে ২০ কোটি ডলার চুরি হয়ে যায়। পরবর্তীতের অনেক চেষ্টার পরে দুই পর্যায়ে কিছু টাকা ফেরত পাওয়া যায়। তিন বছর পরে নিউইয়র্কে মামলা করা হয়েছে। মামলার ঘটনা স্থল বাংলাদেশ ব্যাংক, নিউইয়র্ক ও ফিলিপাইন। টাকা উদ্ধার করা হয়েছে যেই ফিলিপাইনের রিজাল ব্যাংক, তারা বলেছে, এই মামলাটি একটি পলিটিক্যাল স্ট্যান্ড ভিত্তিহীন। এই মামলার আইনজীবী আজমালুল হক কিউসি বলেছেন, মামলাটি করা হবে কি না তা নিয়ে দুই বছর চিন্তা করতে হয়েছে। এই মামলা ফিলিপাইনের রিজাল ব্যাংক চ্যালেঞ্জ করতে পারে।

এই সংসদ সদস্য বলেন, ‘জানি না এই মামলা টিকবে কি না।’

মুজিবুল হক চুন্নু বলেন, ‘আমাদের চুরি হওয়া এই টাকা তিন বছরেও উদ্ধার হয়নি। এটি নিয়ে একটি তদন্ত কমিটিও হয়েছে। তারপর টাকা উদ্ধার হয়নি। আমরা জানতে পারিনি এই চুরির সাথে বাংলাদেশ ব্যাংকের কারা দায়ী। আজকে আমাদের ১ হাজার কোটি টাকা চুরি হয়ে যায়। আর আমরা তিন হাজার কোটি টাকার জন্য শিক্ষা প্রতিষ্ঠান এমপিওভুক্ত করতে পারি না। আমরা ১ হাজার কোটি টাকা উদ্ধার করতে পারি না। আমরা জানতে চাই, এর সাথে বাংলাদেশ ব্যাংকের কারা জড়িত অথবা কেউ জড়িত নাই? আমি এই চুরির ব্যাপারে ৩০০ বিধিতে সংসদে একটি বিবৃতি দিয়ে পুরো বিষয়টি তুলে ধরার জন্য অর্থমন্ত্রীর প্রতি অনুরোধ জানাচ্ছি।’ দৈনিক আমাদের সময়

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত