প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

সংখ্যালঘু পরিবারের জমি দখলের চেষ্টা, গ্রেফতার ১

ইসমাঈল ইমু : নদী ভাঙ্গনে জমি হারানো এক সংখ্যালঘু পরিবারের বাকি জমিটুকু দখলের চেষ্টার অভিযোগ উঠেছে। আদালতের নিষেধাজ্ঞার পরও ওই জমিতে গিয়ে স্থাপনা নির্মাণ, গাছপালা কাটা ও প্রাণনাশের হুমকির ঘটনায় হাসান নামের এক দুর্বৃত্তকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। ঘটনাটি পিরোজপুরের স্বরূপকাঠি থানাধীন কাটাপিটানিয়া গ্রামের।

স্থানীয় সূত্র জানায়, ৮৫ বছরের বৃদ্ধ অনিল চন্দ্র ব্যাপারী পরিবার নিয়ে ৫০ বছর ধরে কাটাপিটানিয়া গ্রামে বসবাস করে আসছেন। তার ১৮ শতাংশ জমির প্রায় অর্ধেক চলে যায় নদী ভাঙ্গনে। বাকি জমিটুকু নিয়ে কোনরকম জীপন যাপন করছেন। সম্প্রতি স্থানীয় কিছু দুর্বৃত্তের নজর লাগে তার জমির উপর। গত শুক্রবার দুর্বৃত্তদের একটি দল ওই বাড়িতে গিয়ে হামলা চালায়। জমিতে লাগানো গাছ কেটে ফেলে বাড়িঘর ভাংচুর করে তারা। এছাড়া ওই বৃদ্ধকে প্রাণনাশেরও হুমকি দেয়। পরে এ ঘটনায় থানায় মামলা করেন অনিল চন্দ্র। পরদিন আসামীপক্ষের লোকজন সাজানো মামলা করতে গেলে হাসান নামের একজনকে আটক করে পুলিশ। তিনি বর্তমানে কারাগারে আছেন। এরপর থেকে অনিলের পরিবারকে নানা হুমকি ধমকি দিচ্ছে। স্থানীয় সাবেক এমপির নাম ভাঙ্গিয়ে এ কান্ড চালাচ্ছে দুর্বৃত্তরা বলে জানা গেছে।

অনিল চন্দ্র ব্যাপারী জানান, তার জমি নিয়ে মামলা চলছিল। ওই জমিতে কেউ জোর করে প্রবেশ করতে পারবেনা এমন রায় দেয় আদালত। থানা পুলিশও দুর্বৃত্তদের জমিতে না যাওয়ার জন্য সতর্ক করেছিল। এরপরও স্থানীয় ভুমিদস্যু হুমায়ুন কবিরের নেতৃত্বে মজিবর মিয়া, আলতাফ হোসেনসহ সন্ত্রাসীদের একটি গ্রুপ জমি দখলের চেষ্টা চালায়। তিনি জমি দখলের চেষ্টাকারিদের গ্রেফতার ও তার নিরাপত্তা দিতে সংশ্লিষ্ট আইন প্রয়োগকারি সংস্থার হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত