প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

সংরক্ষিত সংসদ সদস্য নির্বাচিত হলে পিছিয়ে পড়া নারীর ক্ষমতায়নে কাজ করবেন লামার আরজু

মো. নুরুল করিম আরমান, লামা : একাদশ জাতীয় সংসদের সংরক্ষিত আসনের প্রার্থী হিসেবে দলীয় মনোনয়ন ফরম জমা দিয়েছেন বান্দরবানের লামা উপজেলা মহিলা আওয়ামী লীগের সাবেক সভাপতি ও জেলা কমিটির সদস্য জাহানারা আরজু। স্বাধীনতা পরবর্তী প্রতিবার জাতীয় সংসদের সংরক্ষিত এই আসনের সাবেক মহকুমা লামা থেকে কোন বারেই এমপি মনোনয়ন দেয়া হয়নি। তাই এতদ্বঞ্চল থেকে তিনি এবারে প্রার্থী হয়েছেন। সংসদে যাওয়ার সুযোগ পেলে পিঁছিয়ে পড়া নারীর ক্ষমতায়ন ও টেকসই আর্থ-সামাজিক উন্নয়নের ক্ষেত্রে স্বয়ংসম্পূর্ণতা অর্জনে শক্তিশালী ভুমিকা রাখার পাশাপাশি দুঃস্থ এবং প্রতিবন্ধীদের কল্যানে কাজ করবেন নারী নেত্রী জাহানারা আরজু।

জানা যায়, ১৯৭৬ সালে চট্টগ্রামস্থ ডাঃ খাস্তগীর মহিলা উচ্চ বিদ্যালয় থেকে এসএসসি, ১৯৭৯ সালে সাতকানিয়া সরকারী কলেজ থেকে উচ্চমাধ্যমিক ও ১৯৮৫ সালে এনায়েত বাজার মহিলা কলেজ থেকে স্নাতক পাস করেন। ছাত্র জীবন থেকে তিনি ছাত্র লীগের রাজনীতির সাথে জড়িত থেকে অনবদ্য ভুমিকা পালন করেছেন। মুক্তিযুদ্ধকালীন বি.এল.এফ কমান্ডার (আনোয়ারা ও চট্টগ্রাম) বীর মুক্তিযোদ্ধা ছলিমুল হক চৌধুরীর সাথে বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হন। বর্তমানে তিন সন্তানের জননী জাহানারা আরজু। এরপর নিজের বিশ্বাস এবং স্বামীর সহযোগিতায় পুরোদমে বঙ্গবন্ধুর আদর্শের রাজনৈতিক দল আওয়ামী লীগের আন্দেলন সংগ্রামে শক্তিশালী ভুমিকা পালন আসছেন তিনি। আওয়ামী লীগের দুঃসময়ে প্রতিষ্ঠাতা সভাপতির দায়িত্ব পালন করতে গিয়ে তিনি নানা হয়রানির শিকারও হয়েছিলেন।

উপজেলার ৭টি ইউনিয়ন ও ওয়ার্ড পর্যায়ে মহিলাদের আওয়ামী লীগের পতাকাতলে সংগঠিত করতে অনেক ত্যাগ স্বীকার করতে হয়েছে। রাজনীতির পাশাপাশি জাহানারা আরজু শুরু থেকে এলাকায় নানা সামাজিক কর্মকান্ডে জড়িত হয়ে ইয়াংছা উচ্চ বিদ্যালয় প্রতিষ্ঠা, ইয়াংছা কমিউনিটি ক্লিনিক প্রতিষ্ঠা করেছেন জাহানারা আরজু। এছাড়া তিনি মাতামুহুরী ডিগ্রী কলেজের প্রতিষ্ঠা কালীন শিক্ষানুরাগী সদস্য, মানবাধিকার কমিশন উপজেলা শাখার সহ-সভাপতি, দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক) সদস্য, দুর্বার নারী নির্যাতন প্রতিরোধ কমিটির আহ্বায়ক, জেলা রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটির আজীবন সদস্য পদে দায়িত্ব পালন করছেন।

২০১৩ সালে সমাজ উন্নয়নে ও ২০১৪সালে অর্থনৈকি উন্নয়নে অবদান রাখায় জয়িতা সম্মাননা দেয় মহিলা বিষয়ক অধিদপ্তর। বাংলাদেশ রাবার বাগান মালিক সমিতির সাংগঠনিক সম্পাদক এবং কমিউিনিটি পুলিশিংয়ের সাবেক সভাপতিসহ নানা সামাজিক, সাংস্কৃতিক ও স্বেচ্ছাসেবি সংগঠনের সাথে জড়িত থেকে এলাকার উন্নয়নে কাজ কর চলেছেন এ নারী নেত্রী। নারী নেত্রী জাহানারা আরজু জানান, জাতির পিতার সুযোগ্য কন্যা, মাদার অব দ্যা হিম্যানিটি, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার সরকারের উন্নয়ন ও অগ্রযাত্রাকে আরো বেগবান করে দেশবাসীর ভাগ্য বদলের জন্য তিনি জীবন উৎসর্গ করতে চান।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত