প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

উপজেলা ভোটে চাপ ও লোভের উর্ধ্বে থেকে দায়িত্ব পালনে নির্দেশ মাহবুব তালুকদারের

সাইদ রিপন: আসন্ন পঞ্চম উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে কোনো প্রকার চাপ, লোভের উর্ধ্বে থেকে সংশ্লিষ্টদের দায়িত্ব পালনে নির্দেশ দিয়েছেন নির্বাচন কমিশনার মাহবুব তালুকদার। রোববার (৩ ফেব্রুয়ারি) আগারগাঁওয়ে ইটিআই ভবনে ৫ম উপজেলা নির্বাচন পরিষদ নির্বাচন উপলক্ষে নির্বাচনি কর্মকর্তাদের প্রশিক্ষকদের প্রশিক্ষণ এবং ইভিএম ব্যবহারের মাধ্যমে ভোটগ্রহণ শীর্ষক প্রশিক্ষণ উদ্বোধনকালে তিনি এ নির্দেশনা দেন।

নির্বাচনি কর্মকর্তাদের উদ্দেশ্যে মাহবুব তালুকদার বলেন, আসছে পঞ্চম উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে কোনো প্রকার চাপ, লোভের উর্ধ্বে থেকে আপনাদের দায়িত্ব পালন করতে হবে। দেশের গণতন্ত্রের অভিযাত্রার জন্য স্থানীয় সরকার নির্বাচন অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। কোনো নির্বাচনেই কোনো শিথিলতার সুযোগ নেই। নির্বাচন কমিশনের সম্মান, মর্যাদা অক্ষুণ্ণ রাখাতে আপনাদের সাহসিকতার সঙ্গে স্বীয় বিবেকের কাছে দায়বদ্ধ থেকে দায়িত্বপালন করতে হবে। মনে রাখবেন সুষ্ঠু নির্বাচন আমাদের দেশপ্রেমের অভিব্যক্তি। এতে আপনাদের সফলতা কামনা করি।

তিনি বলেন, প্রশিক্ষণকে আমি সর্বদা দু’ধারী ছুরি বলে অভিহিত করি। ছুরি মানেই নেতিবাচক শব্দ নয়। ছুরি যখন ঘাতকের হাতে। তখন অবশ্যই তা নেতিবাচক। কিন্তু ছুরি যখন একজন সার্জনের হাতে, তখন তা মানুষের কল্যাণে নিয়োজিত।

এই কমিশনার বলেন, কেনো আমি প্রশিক্ষণকে দুধারি ছুরি বলছি তার ব্যাখ্যা প্রয়োজন। প্রশিক্ষণ একদিকে প্রশিক্ষণার্থীদের মেধা, মনন, বুদ্ধি ও দক্ষতাকে শানিত করে। প্রশিক্ষণের প্রতিটি বিষয়বস্তুকে আরো গভীরভাবে অনুধাবনের নিমিত্ত সুযোগ সৃষ্টি করে। তাতে প্রশিক্ষণার্থীদের নিজেদের আরো চৌকশ গড়ে তুলতে পারে। অন্যদিকে প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত কর্মকর্তা প্রশিক্ষণের মাধ্যমে কর্মক্ষেত্রে যে আত্মবিশ্বাস সঞ্চয় করেন। তাকেও শানিত বলা যায়। একদিনে দক্ষতা বৃদ্ধি, অন্যদিকে আত্মবিশ্বাস বৃদ্ধির মাধ্যমে একজন কর্মকর্তা তার যোগ্যতাকে পরিপূর্ণভাবে কাজে লাগাতে পারেন বলে আমি মনে করি।

প্রশিক্ষণার্থীদের উদ্দেশ্য করে তিনি বলেন, এ প্রশিক্ষণ শুধু উপজেলার নির্বাচনের জন্য নয়। আপনাদের সারাজীবনের জন্য সঞ্চয় হয়ে থাকবে। যেমন উপজেলা নির্বাচনে ভোটিং মেশিন বা নির্বাচনে প্রক্রিয়ায় আধুনিক প্রযুক্তি ব্যবহার একটি নতুন ও আধুনিক বিষয়। ভোটকেন্দ্রে সশস্ত্র বাহিনীর কারিগরি সহায়তা প্রদানও ইভিএমে ডেমো ও মক ভোটিং সম্পর্কে ধারণা আপনাদের জ্ঞানের পরিধিকে বহু বিস্তৃত করবে বলে আমি আশা করি।

আয়োজকদের ধন্যবাদ দিয়ে মাহবুব তালুকদার বলেন, প্রশিক্ষণ সূচিটি অত্যন্ত সুচিন্তিত এবং এটি যারা প্রণয়ন করেছে তাদেরকে ধন্যবাদ জানাই।

প্রশিক্ষকদের উদ্দেশ্যে তিনি বলেন, আপনারা যেহেতু প্রশিক্ষকদের প্রশিক্ষক। তাই আপনাদেরকে একটি বিষয়ে সতর্ক করতে চাই। এখানকার প্রত্যেকটি আলোচ্য বিষয়কে আপনাদের গভীরভাবে অনুধ্যান করতে হবে। কোনো বিষয়বস্তু সম্পর্কে কারো অস্পষ্টতা থাকলে তা এখানে নিরসন করা বাঞ্ছনীয়। কোনো বিষয়ে যদি কারো বিভ্রান্তি থাকে, তাহলে আপনারা যাদের প্রশিক্ষণ দেবেন। তাদের মধ্যে সেই বিভ্রান্তি সঞ্চারিত হওয়ার আশঙ্কা রয়েছে। এমন অবস্থা কোনোভাবেই কাম্য নয়।

তিনি আরো বলেন, একজন প্রশিক্ষণার্থীর প্রশিক্ষককে নির্বাচনের প্রতিটি বিষয়ে অবশ্যই হতে হবে স্বচ্ছ ধারণার অধিকারী। তা না হলে সামগ্রিক নির্বাচনী ব্যবস্থাপনার উপর তার বিরুপ প্রভাব পড়তে পারে।
এ সময় নির্বাচন কমিশন (ইসি) সচিব হেলালুদ্দীন আহমদ উপস্থিত ছিলেন।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত