প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

কলাপাড়ায় কৃষকের হাতের কব্জি কর্তন

উত্তম কুমার, (কলাপাড়া) পটুয়াখালী : পটুয়াখালীর কলাপাড়ায় তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে মো. হুমায়ূন হাওলাদার নামের এক কৃষকের বাম হাতের কব্জি কর্তন করে দিয়েছে ছালাম নামের অপর এক কৃষক। এসময় ছোট ভাই সাইদুল হাওলাদার তাকে রক্ষা করতে এগিয়ে আসলে তার উপরও হামলা চালানো হয়। ধারালো অস্ত্রের আঘাতে তার বাম হাতের তিনটি আঙ্গুল বিচ্ছিন্ন হয়ে যায়।

শনিবার সন্ধ্যায় উপজেলার মিঠাগঞ্জ ইউনিয়নের বাইশাখোলা গ্রামে ঘটনাটি ঘটেছে।

আহত সহোদরকে গুরুতর অবস্থায় স্থানীয়রা উদ্ধার করে কলাপাড়া হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। তাদের প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে সংকটপন্ন অবস্থায় ওই রাতেই বরিশাল শের-ই বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। পুলিশ এ ঘটনায় ছালামের স্ত্রী নাসিমা বেগম (৩৫) কে গ্রেপ্তার করেছে। এ সময় একটি চাপাতি উদ্ধার করা হয়।

প্রতিবেশী রুহুল আমিন জানান, হুমায়ুনের গরু শনিবার সন্ধ্যার দিকে চাচাতো ভাই ছালামের বাড়ীতে ঢুকে সীম ক্ষেত নষ্ট করে। এ সময় গরুটি পিটিয়ে নাক ফাটিয়ে দেয়। এ ঘটনা নিয়ে তার তর্কে জড়িয়ে পড়ে। এক পর্যায় ছালাম বাড়ী থেকে একটি চাপাতি নিয়ে তাকে এলোপাথাড়ি কোপ দিয়ে হুমায়ুনের ডান হাতের কব্জি বিচ্ছিন্ন করে ফেলে। এসময় তার ছোট ভাই সাইদুল তাকে রক্ষা করতে গেলে তার উপরও হামলা চালায়। এতে সাইদুলের বাম হাতের তিনটি আঙ্গুল বিচ্ছিন্ন হয়ে যায়।

কলাপাড়া হাসপাতালের চিকিৎসক ডাক্তার মাহবুবুর রহমান সজিব জানান, আহত দুই সহোদরকে বরিশাল রেফার করা হয়েছে।

কলাপাড়া থানার ওসি মো.মনিরুল ইসলাম জানান, এ ঘটনায় ছালামের স্ত্রী নাসিমা বেগমকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। এ সময় একটি চাপাতি উদ্ধার করা হয়। তবে প্রকৃত আসামীকে গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে বলে তিনি সাংবাদিকদের জানান।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত