প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

লোকসভা নির্বাচনে মোদীর মাথা ব্যথার কারণ হতে পারেন মমতা, মায়াবতী কিংবা প্রিয়াঙ্কা

রাশিদ রিয়াজ : ভারতের আসন্ন লোকসভা নির্বাচনে ক্ষমতাসীন রাজনৈতিক দল বিজেপি’র মাথা ব্যথা হতে পারে তিন রাজনৈতিক নেত্রী। এরা হলেন, পশ্চিমবাংলার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দোপাধ্যায়, সদ্য কংগ্রেসের রাজনীতিতে আসা প্রিয়াঙ্কা গান্ধী ও উত্তর প্রদেশের লড়াকু নেত্রী মায়াবতী। ভারতে ঋণে জর্জরিত কৃষকের আত্মহনন, হাজার টাকার নোট বাতিল নিয়ে বিজেপির বিরুদ্ধে পুঞ্জীভূত ক্ষোভ জমা থাকলেও রাজনৈতিক বিশ্লেষকরা বলছেন, লোকসভা ভোটের আগে সবচেয়ে বড় মাথা কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছে ওই তিন নারী নেত্রী। ইওন

সমাজের ভিন্ন ভিন্ন স্তর থেকে উঠে আসা এই তিন নারী রাজনীতিকই ভারতের শাসন কেন্দ্রে পালাবদল ঘটাতে পারেন বলে মনে করা হচ্ছে। সক্রিয় রাজনীতিতে সদ্য পা রাখা প্রিয়াঙ্কার চেয়েও মোদী সরকার যাকে বেশি ভয় পাচ্ছে, তিনি মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। রাজনীতিতে পোড় খাওয়া মমতা পশ্চিমবঙ্গে ৩৪ বছরের বাম শাসনের অবসান ঘটিয়েছেন। লোকসভা ভোটের আগে বিরোধীদের একত্রে এনে ইতিমধ্যেই কাজ শুরু করে দিয়েছেন তিনি। পশ্চিমবঙ্গের মতো ৪২ আসনের রাজ্যে মমতার প্রশ্নাতীত প্রভাব কেন্দ্রে কতটা প্রভাব ফেলে সেই প্রশ্নে এখন থেকেই চিন্তিত বিজেপি নেতারা।

এদিকে নেহেরু-গান্ধী পরিবার থেকে রাজনীতিতে আসা নতুন সদস্য প্রিয়াঙ্কাকে গোড়া থেকেই বড় দায়িত্ব দিয়েছে কংগ্রেস। কংগ্রেসের কর্মী-সমর্থকরাও প্রিয়াঙ্কাকে সক্রিয় রাজনীতিতে পেয়ে অনেকটাই উজ্জীবিত। ৪৭ বছরের প্রিয়াঙ্কার সঙ্গে তার ঠাকুমা ইন্দিরা গান্ধীর সাদৃশ্য যথেষ্ট। সাধারণ মানুষের সঙ্গে সহজে মিশে যাওয়ার সহজাত ক্ষমতার কারণে বিজেপি নেতারা তাকে নিয়ে কটুক্তি ও সমালোচনা করতে পিছপা হয়নি। ভোটের আগে তাই প্রিয়াঙ্কাকেই তুরুপের তাস করতে চাইছে কংগ্রেস।
মোদী সরকারের আরেক চিন্তা রকারণ উত্তরপ্রদেশের লড়াকু নেত্রী মায়াবতী। বিএসপি সুপ্রিমো ইতিমধ্যে কংগ্রেসকে বাদ দিয়ে সমাজবাদী পাাির্টর সঙ্গে লোকসভা ভোটের জন্য জোট গড়েছেন। ৬৩ বছরের এই দলিত নেত্রী বিজেপিকে সমস্যায় ফেলতে পারেন কারণ ধীরে ধীরে এই জায়গায় উঠে আসা মায়াবতীর সঙ্গে একটা বিশাল সংখ্যক পিছিয়ে পড়া শ্রেণীর ব্যাপক সমর্থন রয়েছে।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত